advertisement
আপনি দেখছেন

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে এগিয়ে থেকেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেনি অলিম্পিক লিওঁ। পিছিয়ে থেকেও লিওঁকে ২-১ গোলে হারিয়েছে জুভেন্টাস। তবু হতাশা নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোরা। কারণ এভাবে জিততে চায়নি তুরিনের বুড়িরা। কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে এই জয় যে যথেষ্ঠ ছিল না! শেষ ষোলোর দুই লেগ মিলিয়ে ফল অমীমাংসিত থাকে ২-২ গোলে।

ronaldo juventus 2020 2019

বৃথাই গেল রোনালদোর জোড়া গোল। অ্যাওয়ে গোলের ওপর দাঁড়িয়ে শেষ আটের টিকট কাটল ফরাসি জায়ান্ট লিওঁ। কাল রাতে তুরিনের এলিয়েঞ্জ স্টেডিয়ামে লিওঁ মহামূল্যবান গোলটা পেয়েছে ম্যাচের ১২ মিনিটেই। পেনাল্টি থেকে জুভেন্টাসের জাল কাঁপিয়ে অতিথিদের উচ্ছ্বাসে ভাসান ডাচ উইঙ্গার মেম্ফিস ডিপেই। যা ‍জুভদের শেষ আটে ওঠা প্রায় অসম্ভব করে তোলে।

টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে রোনালদোদের সামনে তখন তিন গোলের কঠিনতর সমীকরণ। কিন্তু জুভরা করতে পারল ‍দুটি। বিরতির আগেই পাল্টা পেনাল্টি গোলে সমতায় ফেরে স্বাগতিক জুভেন্টাস। জুভদের ম্যাচে ফেরান রোনালদো। দলের দ্বিতীয় গোলটাও তিনিই করেছেন। দ্বিতীয়ার্ধের ১৫ মিনিটে করেন চ্যাম্পিয়নস লিগ ক্যারিয়ারের নকআউট পর্বের ৬৭তম গোল।

এই গোলটিই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দিয়েছে জুভেন্টাসের পক্ষে। কিন্তু জিতেও অস্রুসিক্ত বিদায় নিতে হলো রোনালদোদের। কারণ টুর্নামেন্টে স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে আরো একটা গোল দরকার ছিল তাদের। প্রথম লেগে লিওঁর মাঠে ১-০ গোলে হেরেছিল জুভেন্টাস। তাই কাল রাতে দ্বিতীয় লেগে হেরেও ক্ষতি হলো না লিওঁর। আগামী শনিবার পর্তুগালের লিসবনে কোয়ার্টার ফাইনালে লিওঁর প্রতিপক্ষ ম্যানচেস্টার সিটি।

sheikh mujib 2020