advertisement
আপনি দেখছেন

দ্বিতীয় চেষ্টাতেও ব্যর্থ হলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সেরাটা দিয়েও জুভেন্টাসকে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জেতাতে পারলেন না তিনি। এবার বিদায় নিতে হলো শেষ ষোলোতেই। সতীর্থদের ব্যর্থতায় আড়াল হয়ে গেছে তার আপ্রাণ চেষ্টা। দুই মৌসুমেই আলো ছড়িয়েছেন ‘সিআর সেভেন’। শুক্রবার টুর্নামেন্টে জুভেন্টাসের বিদায়ী ম্যাচেও জোড়া গোল করেছেন রোনালদো।

cristiano ronaldo juventus 2019 20 4

শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচটা তুরিনের বুড়িরা জিতেছে ২-১ গোলে। দুই লেগ মিলিয়ে ফলাফল ২-২ গোলে ড্র হয়। কিন্তু অ্যাওয়ে গোলের ওপর দাঁড়িয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে যায় অলিম্পিক লিওঁ। টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যায় জুভেন্টাস। এই ব্যর্থতার দায়ে প্রধান কোচ মারিসিও সারিকে অব্যাহতি দিয়েছেন ক্লাবের নীতি নির্ধারকরা।

শনিবার রাতেই নতুন কোচ হিসেবে আন্দ্রে পিরলোর নাম ঘোষণা করেছে জুভেন্টাস। নতুন কোচ এসেই রোনালদোর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। রোনালদোর পারফরম্যান্স ও চেষ্টাকে কুর্ণিশ জানিয়েছেন ক্লাবের সর্বোচ্চ কর্তারা। কিন্তু পর্তুগিজ যুবরাজকে বোঝাতে এতটুকুই কি যথেষ্ঠ? প্রশ্নটা উঠছে। কারণ রোনালদোর দলবদল নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়ে গেছে।

ronaldo against lyon

স্পোর্টস বাইবেল ও ফুট মার্কোটোর খবর, জুভেন্টাস ছাড়তে চান পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার। আরো একটা অগ্রীম খবর দিয়েছে গণমাধ্যম দুটি। তাদের দাবি তুরিন ছেড়ে প্যারিস সেন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) যাচ্ছেন রোনালদো; প্যারিসে নেইমার-এমবাপ্পের সঙ্গে জুটি বাঁধবেন তিনি। রোনালদোর বন্ধু ও এজেন্ট জর্জ মেন্ডিস নাকি আজ-কালের মধ্যে পিএসজির সঙ্গে আলোচনায় বসবেন।

খবরটাকে স্রেফ গুঞ্জন বলে উড়িয়ে দেওয়ারও উপায় নেই। কারণ চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের স্বপ্ন পিএসজির বহুদিনের। ক্লাবের মালিক নাসের আল-খেলাইফি উড়িয়ে এনেছেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি দুই ফুটবলার নেইমার ও এমবাপ্পেকে। রোনালদো এলে আরো শক্তিশালী হয়ে উঠবে ফরাসি জায়ান্টরা। পর্তুগিজ যুবরাজ রিয়াল মাদ্রিদকে চারটি রূপালি ট্রফি জিতিয়েছেন। খুব স্বাভাবিক, এমন একজনকে যে কেউ-ই দলে টানতে চাইবে।

জুভেন্টাস অবশ্য রোনালদোকে হাতছাড়া করতে রাজি নয়। ক্লাব প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে আগনেল্লি সরাসরি বলে দিয়েছেন, ‘তিনি আমাদের সঙ্গেই থাকছেন। আমি নিশ্চিত, ক্রিশ্চিয়ানো (রোনালদো) পরের মৌসুমেও জুভেন্টাসের হয়ে খেলবেন। তিনিই দলের খুঁটি।’ জুভেন্টাসের প্রধানকর্তা স্বপ্ন দেখতে পারেন রোনালদোকে নিয়ে। স্বপ্ন দেখতে তো আর বাধা নেই!

sheikh mujib 2020