advertisement
আপনি দেখছেন

কয়েকদিন আগেই গণমাধ্যমে খবর আসে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এর কিছুদিন পরই নিজ দেশ থেকে তুরিনে ফিরে আসেন তিনি। এমন প্রেক্ষাপটে এই তারকা ফুটবলারের ওপর 'স্বাস্থ্যবিধি' ভাঙার অভিযোগ আনেন ইতালির ক্রীড়ামন্ত্রী ভিনচেঞ্জো স্পাদাফোরা। তবে সেই অভিযোগ মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিলেন সি আর সেভেন।

cristiano ronaldo after penalty miss over ac milan

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রোনালদোর দাবি করে বলেন, ‘কোন নিয়মবহির্ভূত কাজ করিনি। এরপরও বলা হচ্ছে আমি নাকি ভুল করেছি। যেটা শুধুই একটা মিথ্যা কথা। দলের সাথে কথা বলেই এখানে আসার চিন্তা করি। সবকিছু যথাযথভাবে মেনে চলার দায়িত্ব এখন আমাদের। অভিযোগকারীর নাম প্রকাশ করতে চাচ্ছি না। আবারও বলছি এটা মিথ্যা।'

জাতীয় দলের হয়ে খেলতে গিয়ে কোভিড টেস্টে পজিটিভ আসে রোনালদোর। নিয়ম অনুযায়ী দুই সপ্তাহের নিভৃতবাসে থাকার কথা তার। কিন্তু সেটা না মেনেই ইতালি চলে যান। স্পাদাফোরা আঙুল তুলেন এই জায়গাতেই।

আগামী ২৮ অক্টোবর গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ আছে জুভেন্টাসের। চ্যাম্পিয়নস লিগে এদিন বার্সেলোনার মোকাবেলা করবে তারা। ম্যাচের এক সপ্তাহ আগে উয়েফার কাছে করোনা নেগেটিভ রিপোর্টের কাগজ-পত্র পাঠাতে পারলেই মাঠে নামতে পারবেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ তারকা।

cristiano ronaldo juventus 2019 20

রোনালদোর ইতালি ফেরার পেছনে জুভেন্টাসের সমর্থনও আছে। ক্লাবটির দাবি, স্বাস্থ্যগত ছাড়পত্র নিয়েই পর্তুগাল ছাড়েন নাম্বার সেভেন। যেটা মানতে নারাজ স্পাদাফোরা। বলছেন, এই বিষয়ে তার কাছে কোন প্রমাণ নেই।

সংবাদমাধ্যম রাইকে এই ক্রীড়ামন্ত্রী বলেন, 'ওর ফেরা নিয়ে আমি কিছুই জানিনা। যদি সে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের অনুমতি না নিয়ে থাকে, তাহলে এটা অনেক বড় অপরাধ।'

sheikh mujib 2020