advertisement
আপনি পড়ছেন

টানা ব্যর্থতার জের ধরে রোনাল্ড কোম্যানকে বলির পাঁঠা বানিয়েছে বার্সেলোনা। গেল মঙ্গলবার রাতে রায়ো ভায়োকানোর মাঠে ১-০ গোলে হারের পর ডাচ কোচকে সরিয়ে দেয় কাতালানরা। এরপর থেকেই পুরনো জল্পনা নতুন করে শুরু হলো। গুঞ্জনের কেন্দ্রবিন্দু জাভি হার্নান্দেজ।

xavi hernandez 5জাভি হার্নান্দেজ

যদিও গুঞ্জনে জল ঢেলে দিয়েছিলেন খোদ স্প্যানিশ কিংবদন্তিই। দুদিন আগেই জানালেন, আপাতত আল-সাদকে নিয়েই ভাবছেন তিনি। তার ভাবনায় হয়তো পরিবর্তন এসেছে। কাতার ছাড়ছেন জাভি। ন্যু ক্যাম্পে আসার ব্যাপারে বার্সেলোনার সঙ্গে নাকি আলোচনাও হয়েছে তার।

জাভি, বার্সা এবং আল সাদের মধ্যে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকও হতে পারে। শেষ পর্যন্ত এর সম্ভাব্য ফল, বার্সার দায়িত্ব নেবেন জাভি। শনিবার রাতে এক প্রতিবেদনে এমনটাই দাবি করল স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কা। কাতারি একটি বিশ্বস্ত সূত্র মার্কাকে বলেছে, ‘তিন পক্ষের বৈঠকে কোনো সমস্যা নেই।’

xavi and koemanজাভি ও কোম্যান

২০১৫ সালে বার্সেলোনা ছেড়ে আল সাদে যোগ দেন জাভি। কাতারি এই ক্লাবে খেলেই বুটজোড়া তুলে রেখেছেন। এরপর এখান থেকেই শুরু করেন কোচিং অধ্যায়। তার অধীনে দারুণ পারফর্ম করছে আল সাদ। টানা ৪১ ম্যাচ অজেয় আছে ক্লাবটি। এমন একজন কোচকে কে হাতছাড়া করতে চায়!

জাভির সঙ্গে ২০২২ সাল পর্যন্ত চুক্তি আছে আল সাদের। কিন্তু ওই পর্যন্ত অপেক্ষা করার সময় নেই বার্সার। তাছাড়া জাভিকে নাকি তাদের কাছ থেকে আল সাদই চেয়ে নিয়েছিল কাতারি ফুটবল উন্নয়নের লক্ষ্যে। ছয় বছর আগে তৎকালীন বার্সা সভাপতি হোসেপ মারিয়া বার্তেমিউ জাভিকে ছাড়পত্র দেন।

কিংবদন্তিকে ছাড়ার কারণ তাদের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান। এখনও বার্সার পৃষ্ঠপোষণায় আছে কাতারি কোম্পানি প্রতিষ্ঠান রাকুতেন। জাভিকে ফিরিয়ে আনতে সেই রাকুতেনকেই নাকি ব্যবহার করছে কাতালানরা। এ কারণেই জাভির ক্লাব বদল নিয়ে তিন পক্ষের মধ্যে আলোচনার প্রসঙ্গ আসছে।