advertisement
আপনি পড়ছেন

শুরুতে পিছিয়ে পড়া রিয়াল মাদ্রিদ পয়েন্ট খোয়ানোর আশঙ্কায় পড়েছিল। শেষদিকে ত্রাণকর্তারূপে হাজির হলেন ভিনিচিয়াস জুনিয়র। ব্রাজিলিয়ান তরুণ ফরওয়ার্ডের দুর্দান্ত গোলে দারুণ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ল রিয়াল মাদ্রিদ। রোববার রাতে ঘরের মাঠে সেভিয়াকে রিয়াল হারাল ২-১ গোলে।

real madrid vs sevillaগোল করার পর ভিনিচিয়াস জুনিয়র

এই জয়ে স্প্যানিশ লা লিগার শীর্ষস্থান আরো মজবুত করল কার্লো আনচেলত্তির দল। ‌১৪ ম্যাচে লস ব্ল্যাঙ্কোসদের সংগ্রহ ৩৩ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে চার পয়েন্ট পিছিয়ে তালিকার দুইয়ে উঠে এসেছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। কাল রাতে অন্য ম্যাচে কাজিদের মাঠে ৪-১ গোলে জিতেছে দলটি।

ম্যাচটা সেভিয়ার জন্য ছিল শীর্ষে ওঠার সুযোগ। সেলক্ষ্যে তাদের শুরুটা ছিল আশা জাগানিয়া। ১২ মিনিটে গোল করে অতিথিদের এগিয়ে দেন রাফা মিরে। ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে শুরুর এই ধাক্কা সামলে উঠতে খুব বেশি সময় নেননি আনচেলত্তির শিষ্যরা। ৩২ মিনিটে রিয়ালকে সমতায় ফেরান করিম বেনজেমা।

প্রথমার্ধে আরেকটা গোল হজম করতে পারতো রিয়াল। স্বাগতিকদের বাঁচান গোলরক্ষক থিবাউট কোর্তোয়া। সেভিয়ার আর্জেন্টাইন ফরওয়ার্ড লুকাস ওকাম্পোসের দারুণ শটটা আবার ঠেকিয়ে দেয় রিয়ালের গোলপোস্ট। তাতে ব্যবধান দ্বিগুণ হয়নি সেভিয়ার। উল্টো দিকে এই গোলপোস্টই রিয়ালকে ভাগ্যবশত গোল এনে দেয়।

ম্যাচ শুরুর আধ ঘণ্টা পর এডার মিলিতাওয়ের দূর পাল্লার শট সেভিয়া গোলরক্ষকের গ্লাভসে লেগে গোলপোস্টে আঘাত হানে। ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা বেনজেমা ছুটে গিয়েই বল পাঠিয়ে দেন কাঙ্ক্ষিত ঠিকানায়। লা লিগার চলতি মৌসুমে ফরাসি স্ট্রাইকারের এটা ১১তম গোল। সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে রিয়ালের হয়ে ১৬তম গোল।

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে শেষ হয় প্রথমার্ধ। দ্বিতীয়ার্ধেও লড়াই চলল সমানে সমান। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য দুটি সুযোগ পেয়ে হাতছাড়া করেন ভিনিচিয়াস। ম্যাচের ৮৭ মিনিটে চোখ ধাঁধানো এক গোলে শাপমোচন করেন ব্রাজিলিয়ান ফরওয়ার্ড। করেন জয়সূচক গোল। এর আগ মুহূর্ত পর্যন্ত ম্যাচ ড্রয়ের আশঙ্কা জাগায়।

গোল মিসের মহড়া বসান বেনজেমা, ভিনিচিয়াস ও মার্কো এসেনসিও ত্রয়ী। শেষ পর্যন্ত বাজিমাত করেন ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার। স্বদেশি মিলিতাওর ক্রস বুক দিয়ে নামিয়ে সেভিয়ার দুই ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে জোরাল শটে পরাস্ত করেন গোলরক্ষককে। লিগের চলতি মৌসুমে এটা ভিনিচিয়াসের ৯টি। যা লিগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

কাল রাতে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদও। কাদিজের মাঠে চার গোল করলেও জয়ের জন্য একটু কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে ডিয়েগো সিমনের দলকে। ম্যাচের পাঁচটি গোলই হয়েছে দ্বিতীয় ভাগে। প্রথম গোলের জন্য অতিথিদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ৫৬ মিনিট পর্যন্ত। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের।

দুই মাদ্রিদের পর টেবিলে অবস্থান রিয়াল সোসিয়েদাদের। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সমান ২৯ পয়েন্ট তাদেরও। তবে গোলগড়ে পিছিয়ে তৃতীয়তে নেমেছে তারা। সেভিয়া নেমেছে চারে। তাদের পয়েন্ট ২৮। তবে অন্যরা ১৪ ম্যাচ খেললেও সোসিয়েদাদ খেলেছে একটি বেশি। ১৪ ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার সপ্তম স্থানে আছে বার্সেলোনা।