advertisement
আপনি পড়ছেন

সাত মাস আগে জার্মান বুন্দেসলিগায় জার্ড মুলারের এক মৌসুমে করা সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড ভেঙে ফেলেন রবার্ট লেভানডফস্কি। ফর্মটা এই মৌসুমেও ধরে রেখেছেন বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ স্ট্রাইকার। এবার জার্মান কিংবদন্তির আরো একটা রেকর্ড ভাঙতে চলেছেন ৩৩ বছর বয়সী এই তারকা।

levandomski germanyরবার্ট লেভানডফস্কি

১৯৭২ সালে এক ক্যালেন্ডারে সর্বোচ্চ ৪২টি গোলের রেকর্ড গড়েছিলেন বায়ার্ন মিউনিখের সাবেক স্ট্রাইকার মুলার। রেকর্ডটা প্রায় চার দশক ধরে টিকে আছে। মঙ্গলবার সেই রেকর্ডটা নড়বড়ে হয়ে উঠল। পূর্বসূরিকে ছুঁয়ে ফেলেছেন লেভা। আর এক গোল হলেই নতুন ইতিহাস গড়বেন গত বছরের বর্ষসেরা ফুটবলার।

গতকাল জার্মান লিগে স্টুটগার্টকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে বায়ার্ন মিউনিখ। বাভারিয়ানদের বড় জয়ের নায়ক সার্জি জিন্যাব্রি। হ্যাটট্রিক করেছেন এই জার্মান ফরওয়ার্ড। অন্য দুই গোলেও রেখেছেন অবদান। বায়ার্ন গোল উৎসব করবে আর লেভা জালের নাগাল পাবেন না সেটা আবার হয় নাকি। যথারীতি গোল করলেন দলের প্রাণভোমরা।

bayern celebration 2020 21বায়ার্ন মিউনিখের খেলোয়াড়দের উল্লাস

একটি নয়, দুটি গোল করেছেন লেভা। তবে বায়ার্ন যে বড় ব্যবধানে জিততে চলেছে সেটা প্রথমার্ধে বোঝার উপায় ছিল না। ঘরের মাঠে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের ৪০ মিনিট পর্যন্ত আটকে রেখেছিল স্টুটগার্ট। এরপরই প্রতিরোধ গুঁড়িয়ে দেন জিন্যাব্রি, খোলেন গোলমুখ। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে বায়ার্ন।

প্রথমার্ধে মুহুর্মুহু আক্রমণ করে একটির বেশি গোল না পাওয়া বাভারিয়ানরা রুদ্রমূর্তি ধারণ করে দ্বিতীয়ার্ধে। এই অর্ধে স্বাগতিকদের জালে এক হালি গোল দেয় দেয় দ্য রেডরা। এ সময় হ্যাটট্রিক করেন জিন্যাব্রি। কিন্তু লেভার জোড়া গোলে আড়ালে চলেন যান ম্যাচসেরার স্বীকৃতি পাওয়া এই ফরওয়ার্ড।

এক বর্ষপঞ্জিকায় সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড থেকে এক হাত দূরে আছেন লেভানডফস্কি। আগামী শুক্রবারই ইতিহাস গড়ার সুযোগ পাচ্ছেন পোলিশ সেনসেশন। সেদিনই এ বছরের শেষ ম্যাচটি বায়ার্ন মিউনিখ খেলবে ভলফসবুর্গের বিরুদ্ধে। কাল রাতে এই দলটা দুবার এগিয়ে থেকেও কোলনের কাছে হেরেছে ৩-২ গোলে।

১৬ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে কোলন উঠেছে টেবিলের আট নম্বরে। ২০ পয়েন্ট নিয়ে ১১ নম্বরে থাকল ভলফসবুর্গ। তাদের সমান ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে সবার ধরাছোঁয়ার বাইরে আছে শীর্ষে থাকা বায়ার্ন মিউনিখ। ১৫ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দুইয়ে থাকল বুরুসিয়া ডর্টমুন্ড। তিনে থাকার বায়ার লেভারকুজেনের সংগ্রহ ২৭ পয়েন্ট।