advertisement
আপনি পড়ছেন

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের আগের ম্যাচে সাত গোল করেছে বায়ার্ন মিউনিখ। অথচ কোয়ার্টার ফাইনালে প্রথম লেগে কিনা গোলের নাগালই পেল না বাভারিয়ান জায়ান্টরা! ম্যাচজুড়ে হতাশ করা জার্মান ক্লাবটি শেষ পর্যন্ত অঘটনের শিকার হলো। ভিয়ারিয়ালের মাঠে খেলতে গিয়ে ১-০ গোলের হার নিয়ে ঘরে ফিরল বায়ার্ন মিউনিখ।

bayern munich upset by villarreal in champions league quarterfinal first legবায়ার্নকে হারিয়ে ভিয়ারিয়ালের ইতিহাস

বুুধবার রাতে এই হারে দর্পচূর্ণ হলো বায়ার্ন মিউনিখের। ইউরোপিয়ান শীর্ষস্থানীয় ক্লাব টুর্নামেন্টের এই মৌসুমে এটাই প্রথম হার বাভারিয়ানদের। প্রতিযোগিতার ইতিহাসে বাভারিয়ানদের বিরুদ্ধে এটাই প্রথম জয় ভিয়ারিয়ালের। ঐতিহাসিক এই জয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে খেলার আশা জাগিয়ে রাখল স্প্যানিশ ক্লাবটি।

তবে এই হারে সব শেষ হয়ে যায়নি বায়ার্ন মিউনিখের। আগামী ১২ এপ্রিল ফিরতি লেগে ঘরের মাঠ অ্যালিয়েঞ্জ এরিনায় বাভারিয়ানদের জিততে হবে দুই গোলের ব্যবধানে। তবে হার ঠেকালেই চলবে ভিয়ারিয়ালের। তবেই হবে নতুন এক ইতিহাস। ইতিহাস গড়ার শুরুর ভিতটা তারা পেয়ে গেল প্রথম লেগে। ঘরের মাঠে উজ্জীবিত ফুটবল উপহার দিল চমক জাগানো দলটি।

arnaut danjuma of villarreal celebratesআরনাট ডানজুমা

ম্যাচের আগা-গোড়া বায়ার্ন মিউনিখকে চাপে রেখে খেলে ভিয়ারিয়াল। এর সুফল স্বাগতিক শিবির পেয়েছে ম্যাচের ৮ মিনিটেই। পরিচিত দর্শকদের শুরুতেই উৎসবে ভাসান আরনাট ডানজুমা। এই গোলটার আর শোধ দিতে পারেনি বাভারিয়ানরা। উল্টো আরো একটি গোল হজম করেছিল বায়ার্ন। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে গোলটা বাতিল হয়ে যায় অফসাইডের কারণে।

ভিয়ারিয়ালের জয়ের ব্যবধান বাড়তে পারতো। সেটা হয়নি তাদের একটা শট বায়ার্নের পোস্টে লেগে ফিরে আসলে। সেই হতাশা অবশ্য বাতাসে মিলিয়ে গেছে ঘরের মাঠে রূপকথার জয়ে। ফিনিশিং দুর্বলতা না থাকলে দ্বিতীয় গোলটাও পেতে পারতো তারা। বিপরীতে প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টা করেও আর সমতায় ফেরা হয়নি বায়ার্নের।

শেষ ষোলোতে ভিয়ারিয়াল বিদায় করেছে ইতালিয়ান ক্লাব ফুটবলের পরাশক্তি জুভেন্টাসকে। এবার আরো বড় চমক উপহার দিল তারা। স্প্যানিশ ক্লাবটির রূপকথা কতদূর পর্যন্ত এগোয় সেটাই কার্যত দেখার অপেক্ষা।