advertisement
আপনি পড়ছেন

দুদিন আগে ফেঞ্চ লিগ ওয়ানের হারানো শিরোপা উদ্ধার করেছে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)। এই সাফল্যের নেপথ্য নায়ক মাওরিসিও পচেত্তিনো। কিন্তু আর্জেন্টাইন কোচকে যে লক্ষ্য পূরণের জন্য প্যারিসে আনা হয়েছে তা পূরণ হয়নি। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে আরো একবার ব্যর্থ হয়েছে পিএসজি। প্রধান কোচ হিসেবে দায়টা এড়াতে পারেন না পচেত্তিনো।

mauricio pochettino tottenham coachমাওরিসিও পচেত্তিনো

গতকাল সোমবার ফরাসি সংবাদমাধ্যমগুলোতে খবর বেরিয়েছে, আর্জেন্টাইন কোচকে সরিয়ে দিচ্ছে পিএসজি। এই মৌসুমের বাকি ম্যাচগুলোর দায়িত্ব পালন করবেন মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেদের গুরু। তাকে বরখাস্ত করে নতুন মৌসুমে নতুন কোচের সন্ধানে নেমেছে পিএসজি। এই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে টটেনহাম হটস্পার প্রধান কোচ অ্যান্তনিও কন্তেকে প্রস্তাব পাঠিয়েছে প্যারিসিয়ানরা।

চলতি মৌসুমের মাঝপথে ইতালিয়ান কোচকে নিয়োগ দিয়েছে উত্তর লন্ডনের ক্লাবটি। কিন্তু স্পার্সদের হয়ে চাকরিটা ঠিকঠাক উপভোগ করতে পারছেন না কন্তে। সেটা নিজেও বলেছেন কন্তে। তখন থেকেই তার ভবিষ্যত নিয়ে দেখা দেয় জল্পনা। ইতালিয়ান সফল কোচকে দলে টানতে তাই অনেক ক্লাবই ওঁৎ পাতা শুরু করে। পিএসজি সেই দলগুলোরই একটি।

ব্রিটিশ মিডিয়ায় খবর হয়েছে, এই মৌসুম শেষে লন্ডন ছাড়বেন কন্তে। সুযোগটা কাজে লাগাতে চায় পিএসজি। সোমবার প্রকাশিত ফরাসি প্রচারমাধ্যম লা প্যারিসিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিএসজির পরিচালনা পর্ষদ নতুন কোচ হিসেবে কন্তেকে প্রস্তাব পাঠিয়েছে। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে দল বাদ পড়ার পর থেকেই নাকি ইতালিয়ান কোচের ওপর নজর পড়েছে পিএসজির।

ফরাসি ক্লাবটির সঙ্গে পচেত্তিনোর চুক্তির মেয়াদ অবশ্য আরো এক মৌসুম বাকি আছে। আর্জেন্টাইন কোচকে ছাঁটাই করতে হলে অন্তত ১২.৬ মিলিয়ন পাউন্ড গুনতে হবে পিএসজিকে। ‘টাকার কুমির’ খ্যাত কাতারি মালিকানাধীন ক্লাবটির পক্ষে অংকটা অবশ্য আহামরি নয়।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের গুঞ্জন ছিল, পিএসজি ছেড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দিতে পারেন পচেত্তিনো। কিন্তু কিছুদিন আগে এরিক টেন হাগকে নিয়োগ দিয়ে ফেলে ম্যানইউ। তাতে করে আর্জেন্টাইন কোচের পরবর্তী গন্তব্য নিয়ে শুরু হলো নতুন ধোঁয়াশা।

কন্তে পিএসজির প্রস্তাবে সায় দেবেন কি না, সেই প্রশ্নের উত্তর আপাতত তোলা থাকল ভবিষ্যতের হাতে। তবে ইতালিয়ান কোচ ছাড়াও পিএসজির ভাবনায় আছে রিয়াল মাদ্রিদের কিংবদন্তি খেলোয়াড় ও সাবেক সফল কোচ জিনেদিন জিদান। জিজু অবশ্য প্যারিসিয়ানদের প্রস্তাবে রাজি হবেন না বলে জানা গেছে। কারণ ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের পর ফ্রান্সের দায়িত্ব ছাড়বেন প্রধান কোচ দিদিয়ের দেশাম। জিদান পূরণ করতে পারেন সাবেক সতীর্থের শূন্যস্থান।