advertisement
আপনি পড়ছেন

আসছে গ্রীষ্মকালীন দলবদলের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ কিলিয়ান এমবাপ্পে। তার সঙ্গে অগামী ৩০ জুন পর্যন্ত চুক্তি আছে ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি)। ফরাসি ফরওয়ার্ডকে ধরে রাখতে সবরকম চেষ্টা করে যাচ্ছে প্যারিসিয়ানরা। অন্যদিকে, তাকে উড়িয়ে আনতে মরিয়া হয়ে উঠেছে স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ।

kylian mbappe monaco psg ligue 1কিলিয়ান এমবাপ্পে

লস ব্লাঙ্কোসদের হয়ে খেলার স্বপ্ন এমবাপ্পের শৈশবের। সেই স্বপ্ন পূরণ হতে পারে নতুন মৌসুমে। কিন্তু তার স্বপ্নের পথে দাঁড়িয়ে আছে বর্তমান ক্লাব পিএসজি। এমবাপ্পের মা গত সপ্তাহে কাতারের দোহায় গিয়ে পিএসজির শীর্ষ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে এসেছেন। এবার এমবাপ্পে এসেছেন মাদ্রিদে; রিয়াল কর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করতে।

পিএসজির সঙ্গে এমবাপ্পের এজেন্ট অর্থাৎ তার মায়ের আলোচনা হয়েছে। এবার রিয়ালের সঙ্গে কথা বলবেন ফরাসি ফরওয়ার্ড নিজেই। এরপরই নিজের ভবিষ্যত নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানোর কথা তার। অবশ্য মাদ্রিদে একা আসেননি এমবাপ্পে। সঙ্গে এনেছেন পিএসজি সতীর্থ আশরাফ হাকিমিকে। আছেন তাদের বন্ধুরাও।

psg and real madrid logoরিয়াল মাদ্রিদ ও পিএসজি

সোমবার এমবাপ্পেরা আসার কয়েক ঘণ্টা পর মাদ্রিদে পা রেখেছেন পিএসজি প্রেসিডেন্ট নাসের আল-খেলাইফিও। সেটা অবশ্য দলের সেরা খেলোয়াড়ের দলবদল ইস্যুতে নয়। কাতারি ধনকুবের মাদ্রিদে এসেছেন ইউরোপিয়ান ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করতে। ইস্যু- উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ সম্প্রচার স্বত্ব।

২০২৪ সাল থেকে নতুন সম্প্রচার নীতিতে হাঁটতে যাচ্ছে ইউরোপের শীর্ষ ক্লাবগুলো। গুরুত্বপূর্ণ এই সভা শেষে সরাসরি কাতার চলে যাবেন খেলাইফি। ফলে সফরে রিয়াল মাদ্রিদ পরিচালকদের সঙ্গে সাক্ষাৎ হচ্ছে না পিএসজির সর্বোচ্চ কর্তার। ইউরোপিয়ান সুপার লিগ বিতর্কের পর খেলাইফির সঙ্গে আর দেখা হয়নি রিয়াল প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ কিংবা ক্লাবের কোনো পরিচালকের সঙ্গে।