advertisement
আপনি পড়ছেন

প্যারিস সেন্ট জার্মেই, পিএসজিতে যোগ দেওয়ার পর ইনজুরির কারণে অনেক সময় মাঠের বাইরে কাটাতে হয়েছে নেইমার জুনিয়রকে। চোট কাটিয়ে যতদিন মাঠে নেমেছেন, তার বেশিরভাগ সময়ই দলের জয়ে রেখেছেন দারুণ ভূমিকা। মেটজের বিপক্ষে চেনা ছন্দে ছিলেন এই ফরোয়ার্ড। তাতেই অসাধারণ এক মাইলফলকে পৌঁছে গেছেন তিনি।

metz vs neymarমেটজের বিপক্ষে একটি গোল করেন নেইমার

ফরাসি লিগ ওয়ানে গতকাল মেটজের বিপক্ষে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলতে নামে পিএসজি। পার্ক দে প্রিন্সেসে ফ্রেডেরিক আন্তোনেত্তির দলকে ৫-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করেছে স্বাগতিকরা। হ্যাটট্রিক করেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার পাশাপাশি একটি গোল করেন নেইমার।

ঘরের মাঠে ম্যাচের ৩১ মিনিটে গোলটি করেন নেইমার। ডি মারিয়াকে প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডার বাঁধা দিলে বল পেয়ে যান সাবেক বার্সেলোনা তারকা। চমৎকার ফিনিশিংয়ে জালে বল বল পাঠান ৩০ বছর বয়সী নেইমার। সেই সাথে তৃতীয় ফুটবলার হিসেবে ভিন্ন তিনটি ক্লাবের হয়ে নুন্যতম ১০০ গোল করার রেকর্ড গড়েন তিনি। এর আগে এই কীর্তি গড়েছেন সাবেক ব্রাজিলিয়ান তারকা রোমারিও এবং ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পর্তুগীজ ফরোয়ার্ড ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

romario and ronaldoরোমারিও এবং রোনালদো

পিএসজির হয়ে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে গোলের সেঞ্চুরি করতে ১৪৪ ম্যাচ খেলতে হল নেইমারকে। সান্তোস এফসি দিয়ে পেশাদার ক্যারিয়ার শুরু করেন নেইমার। ব্রাজিলের ক্লাবটির হয়ে ২২৫ ম্যাচ খেলে করেছেন ১৩৬ গোল। অন্যদিকে দলবদলের বাজারে রেকর্ড গড়ে বার্সেলোনা ছাড়ার আগে ১৮৬ ম্যাচে ১০৫ গোল করেছেন সময়ের আলোচিত এই তারকা।

সবার আগে এই রেকর্ডটি গড়েন রোমারিও। পিএসভি আইন্দহোভেন, ভাস্কো দা গামা এবং ফ্ল্যামেঙ্গোর হয়ে নুন্যতম ১০০টি করে গোল করেন ব্রাজিলের ১৯৯৪ বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য। অন্যদিকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, রিয়াল মাদ্রিদ এবং জুভেন্টাসের হয়ে এই কীর্তিতে নাম লেখান রোনালদো।