advertisement
আপনি দেখছেন

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণের তালিকায় বিশ্বে এই মুহূর্তে চতুর্থ স্থানে অবস্থান করছে ভারত। যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে আগামীকালই তালিকায় ওপরের স্থানে থাকা রাশিয়াকে পেছনে ফেলে তৃতীয় স্থান দখল করবে দেশটি। এর মধ্যেই এবার দর্শনার্থীদের জন্য অন্যতম পর্যটন আকর্ষণ তাজমহল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের পর্যটন মন্ত্রণালয়।

taj mahal during cv

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, দীর্ঘ তিন মাস বন্ধ থাকার পর কঠোর স্বাস্থ্যবিধি আরোপ করে আগামীকাল সোমবার থেকে দর্শনার্থীদের জন্য খুলে দেয়া হচ্ছে আগ্রার সপ্তদশ শতকের এই মোগল স্থাপত্যটি। তবে দর্শনার্থীদের অবশ্যই মাস্ক পরে থাকতে হবে এবং পরস্পরের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। তাজমহলের চকচকে মার্বেল পাথরের পৃষ্ঠে কোনোভাবেই হাত স্পর্শ করা যাবে না।

ভারতের পর্যটন মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে সেখানে দৈনিক মাত্র পাঁচ হাজার দর্শনার্থী প্রবেশের অনুমতি পাবেন। এদের আবার দুই দলে ভাগ করে দেয়া হবে। সব স্মৃতিস্তম্ভ ও স্থাপনাতে স্যানিটাইজেশন করা এবং সামাজিক দূরত্ব ও অন্যান্য স্বাস্থ্য বিধি পালন বাধ্যতামূলক করা হবে।

taj mahal

স্বাভাবিক সময়ে তাজমহল দেখতে দৈনিক প্রায় ৮০ হাজার লোক জড়ো হয়। সেই তুলনায় এ সংখ্যাটা অনেক কম। তবে খুলে দেয়া হলেও দর্শনার্থী কতজন আসে, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

এ ছাড়া রাজধানী নয়া দিল্লির ঐতিহাসিক লাল কেল্লাসহ অন্যান্য স্থাপনাগুলো খুলে দেয়া হচ্ছে। এমন সময়ে পর্যটন স্পটগুলো খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হলো, যখন ভারতে করোনায় সংক্রমণের সংখ্যা সবচেয়ে দ্রুতগতিতে বাড়ছে।

আজ রোববার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গত একদিনের ব্যবধানে আরো ২৪ হাজার ৮৫০ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। যা এখন পর্যন্ত ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণের নতুন রেকর্ড। এ নিয়ে দেশটিতে শনাক্তকৃত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ছয় লাখ ৭৩ হাজার ১৬৫ জন।

sheikh mujib 2020