advertisement
আপনি দেখছেন

মরুভূমিতে দিনের বেলায় তীব্র গরম এবং রাতের বেলায় তীব্র শীত অনুভূত হয়। যেমন সাহারা মরুভূমিতে এক রাতেই গড়ে ৭৫ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত তাপমাত্রা কমে যায়।

sahara desert morocco

দিনের বেলার তাপমাত্রা যেখানে ১০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট থাকে, রাতের বেলায় তা নেমে আসে ২৫ ডিগ্রি ফারেনহাইটে। অন্যসব মরুভূমিতেও প্রায় একই রকমের ঘটনা ঘটে। এর মূল কারণ হচ্ছে তাপের বিকিরণ। তাপের বিকিরণ হলো কোন মাধ্যম ছাড়াই তাপের এক স্থান থেকে অন্য স্থানে সঞ্চালন।

তাপ সাধারণত তিনটি পদ্ধতিতে সঞ্চালিত হয়। এগুলো হলো পরিবহন, পরিচলন ও বিকিরণ। পরিবহন ও পরিচলন পদ্ধতিতে তাপ সঞ্চালিত হতে জড় মাধ্যমের প্রয়োজন হয়। এই পদ্ধতিতে খুব সহজেই একটি জড়বস্তু থেকে অন্য একটি জড়বস্তুতে তাপ সঞ্চালিত হয়।

sahara desert morocco 1

অন্যদিকে বিকিরণ পদ্ধতিতেই সূর্য থেকে পৃথিবীতে তাপ আসে। দিনের বেলা সূর্য তাপ বিকিরণ করে আর পৃথিবী সেই তাপ শোষণ করে। যার ফলে ভূপৃষ্ঠ উত্তপ্ত হয়। ভূপৃষ্ঠ যত বেশি তাপ শোষণ করে উত্তপ্ত হয় তত বেশি গরম অনুভূত হয়। বিপরীতে ভূপৃষ্ঠ যত বেশি তাপ বিকিরণ করে ততো বেশি শীত অনুভূত হয়।

মরু অঞ্চলের বাতাস শুষ্ক হয়ে থাকে। যা তাপ বিকিরণের জন্য স্বচ্ছ পদার্থ হিসেবে কাজ করে। অর্থাৎ শুষ্ক বায়ুর মধ্য দিয়ে খুব সহজেই তাপ বিকিরণ হতে পারে। যার ধরুন দিনের বেলায় খুব সহজেই সূর্যের তাপ বিকিরিত হয়ে ভূপৃষ্ঠে আসে। ভূপৃষ্ঠ তা শোষণ করে উত্তপ্ত হয়।

একই শুষ্ক বাতাসের কারণে রাতের বেলায় মরু অঞ্চলে প্রচুর পরিমাণ তাপ বিকিরিত হয়ে নিঃসরিত হয়। বায়ু শুষ্ক থাকার কারণে তাপ খুব সহজেই বায়ুমণ্ডল ভেদ করে চলে যেতে পারে। এর ফলে ভূপৃষ্ঠে খুব দ্রুত তার তাপ হারিয়ে শীতল হয়ে পড়ে।

শুষ্ক বাতাসের জন্য তাপ বিকিরণের মাত্রা বেশি হওয়ার কারণেই মূলত মরু অঞ্চলে দিনের বেলা প্রচন্ড গরম এবং রাতের বেলা প্রচণ্ড শীত অনুভূত হয়।