advertisement
আপনি পড়ছেন

সাতটি মুসলিম দেশের মুসলিম নাগরিকদের উপর যে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মার্কিন প্রশাসন, সে বিষয়ে গণমাধ্যমে মিথ্যা খবর প্রকাশ হচ্ছে বলে দাবি করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। একই সঙ্গে তিনি তার পদক্ষেপকে মুসলিম দেশের উপর বিদ্বেষ নয় বলেও দাবি করেছেন।

donald trump is being critisized for his comment on banning muslim to enter usa

ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা একটি নিরাপদ নীতি গ্রহণ করবো। তারপর সব দেশের নাগরিকদের জন্য ভিসা প্রক্রিয়া খুলে দেয়া হবে। আমি পরিস্কার করে বলছি, আমাদের পদক্ষেপ মুসলিমদের উপর নিষেধাজ্ঞা নয়।’

২৭ জানুয়ারি এক নির্বাহী আদেশে সাতটি মুসলিমদের নাগরিকদের আগামী চারমাস যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা না দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। একই সঙ্গে ওই সাত দেশের নাগরিকদের মধ্যে যাদের বৈধ ভিসা বা যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করার অনুমতি আছে, তারাও যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে থাকলে নিষেধাজ্ঞার সময়ে ঢুকতে পারবেন না।

আগামী চারমাস যুক্তরাষ্ট্রে কোনো শরণার্থীও ঢুকতে পারবে না বলে নির্বাহী আদেশে বলেন ট্রাম্প। এ ছাড়া সিরিয়ার শরণার্থীদের ক্ষেত্রে বলা হয়, পরবর্তী নির্দেশনার আগে তারাও যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে পারবেন না।

ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্ত সারা পৃথিবীতেই তোলপাড় ফেলে দিয়েছে। বিভিন্ন দেশের বিমানবন্দরে আটকে পড়ছেন ওই সাত দেশের নাগরিকরা। ট্রাম্পের সিদ্ধান্তে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আরব লিগও। এ ছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চলছে ট্রাম্প বিরোধী বিক্ষোভ- সমাবেশ।