advertisement
আপনি পড়ছেন

মুসলিম অধ্যুষিত সৌদি আরবসহ মোট সাতটি দেশ কাতারের সাথে সব রকম কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার পর দেশটির প্রতি সকল প্রকার সমর্থন ব্যক্ত করেছে তুরস্ক। তুরস্কে নিযুক্ত বিদেশি রাষ্ট্রদূতদের সম্মানে এক ইফতার পার্টিতে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোগান এই সমর্থন ব্যক্ত করেন।

erdogan turkey

সৌদি আরবসহ কয়েকটি আরব দেশের সঙ্গে কাতারের চলমান দ্বন্দ্বের সমালোচনা করে এরদোগান বলেন, মধ্যপ্রাচ্যের রাজনীতি থেকে কাতারকে একঘরে করার নীতি কখনোই সফল হবে না। বরং এতে সবাই ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে তিনি সতর্ক করেন।

বর্তমান পরিস্থিতিতে কাতারের ভূমিকার প্রশংসা করে এরদোগান বলেন, উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে কাতারের ভূমিকা বরং প্রশংসনীয়। দেশটি একটি কার্যকর যুদ্ধে নেতৃত্ব দিচ্ছে।

উল্লেখ্য, উপসাগরীয় অঞ্চলে সন্ত্রাসবাদের সমর্থনের অভিযোগ এনে সাতটি দেশ কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। এই দেশগুলো হলো সৌদি আরব, মিসর, বাহরাইন, আরব আমিরাত, লিবিয়া, ইয়েমেন ও মালদ্বীপ। তাদের অভিযোগ, বিভিন্ন সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে নানাভাবে সহায়তা করছে কাতার।

অন্যদিকে কাতার এধরণের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে অভিহিত করেছে। বরং সাত দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের এই ঘটনাকে অন্যায় পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করেছে দেশটি।