advertisement
আপনি পড়ছেন

নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিদের উপর বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে নাইজেরিয়ার উত্তর পূর্বাঞ্চলে। এতে নিহতের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৪২ জনেরও বেশি। আহত হয়েছে প্রায় শতাধিক মুসল্লি। তবে এখন পর্যন্ত কারা এই হামলা করেছে তার কোন খোঁজ পায়নি নাইজেরিয়ান সরকার।

naigeria map

অনেকেই ধারণা করছে দেশটি প্রধান জঙ্গি গোষ্ঠী বোকা হারাম এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে। কারণ এ গোষ্ঠীই নাইরিজেরিয়ার আগের সব বোমা হামলাগুলোর দায়ভার নিয়ে আসছে এবং নিজদের মতাদর্শের বাইরের যে কোন ব্যক্তি ও স্থানকে হামলার লক্ষবস্তু বানিয়ে নিচ্ছে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাতে জানা গেছে বোকা হারাম জঙ্গি গোষ্ঠিী মূলত মুসলিম এবং খ্রিষ্টান উভয় সম্প্রদায়ের নিয়ন্ত্রনেই রয়েছে। ফলে যখন যারা তাদের আদর্শকে সমর্থন করেনা তাদের উপরই হামলা চালায়।

বিবিসির বরাতে জানা যায়, নাইজেরিয়ার রাজধানী মাইদুগুরিতে এক আত্মঘাতীর হামলার শিকার হয় মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মুলসল্লিগণ। এ হামলায় নিহত হয় মোট ১৫ জন মুসলিম।

তারপর একইদিনে ইয়োলা শহরের জিমেতা এলাকায় নতুন একটি মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করতে আসা মুসল্লিদের লক্ষ করে দ্বিতীয় বোমা হামলা চালানো হয়। এতেও নিহত হন ২৭ জনের বেশি মুসল্লি। একই দিনের এই দুই হামলায মোট ৪২জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন বলে খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।

সম্প্রতি দেশটিতে বোকা হারাম জঙ্গি গোষ্টির হামলা প্রায় প্রতিদিনই মারা যাচ্ছে হাজার মানুষ। এগোষ্টীটির ভয়ে অনেকেই নিজের ঘরবাড়ি হাড়িযে শরণার্থীতে পরিণত হচ্ছেন এবং মানবেতর জীবন যাপন করছেন কয়েক হাজার মানুষ।

 
আপনি আরো পড়তে পারেন 

গয়নার ব্যাগ ফেরত: সততার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন রিক্সাচালকের

আইএমএফ: ৫ বছরের মধ্যে দেউলিয়া হবে সৌদি আরব

খড়ায় জেগে উঠলো ষোড়শ শতকের গীর্জা