advertisement
আপনি দেখছেন

মার্কিন পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ সিনেটের প্রতিনিধিরা একটি প্রস্তাব পাস করেছেন যেখানে ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের প্রতি সমর্থন বন্ধ করে দেয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। প্রস্তাবটির পক্ষে ৫৪ ভোট এবং বিপক্ষে ৪৬টি ভোট পড়েছে।

yemen war 1

২০১৫ সালে ইয়েমেনের হোথি বিদ্রোহীরা দেশটির রাজধানী সানার নিয়ন্ত্রণ নিলে পার্শ্ববর্তী সৌদি আরবে পালিয়ে প্রেসিডেন্ট আব্দু রাবু মনসুর হাদি। এর পর সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট দেশটিতে সামরিক অভিযান শুরু করে। যাতে যাবতীয় সহযোগিতা দিচ্ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে, চলমান যুদ্ধে ১০ হাজারের বেশি ইয়েমেনি নিহত হয়েছে। এ ছাড়া লাখ লাখ লোক উদ্বাস্তু হয়েছে। দেশটিতে একাধিক বার দুর্ভিক্ষের আশঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ।

তবে মার্কিন গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে ইরানের পার্সটুডে বলছে, প্রস্তাবটি বাস্তবায়নের জন্য তিনটি ধাপ অতিক্রম করতে হবে। প্রথমত, অবশ্যই প্রতিনিধি পরিষদের অনুমতি লাগবে। অবশ্য প্রতিনিধি পরিষদে বিরোধী ডেমোক্র্যাট দলের সদস্যরা সংখ্যাগরিষ্ঠ হওয়ায় সেখানে এ প্রস্তাব পাসের যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।

দ্বিতীয়ত, প্রতিনিধি পরিষদে প্রস্তাবটি পাস হলেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাতে ভেটো দিতে পারেন।

তৃতীয়ত, ট্রাম্প ওই প্রস্তাবে ভেটো দিলেও তা বাস্তবায়ন করতে হলে মার্কিন কংগ্রেস সদস্যদের দুই তৃতীয়াংশের সমর্থন লাগবে। কিন্তু কংগ্রেসের দুই তৃতীয়াংশের সমর্থন পেতে ব্যর্থ হলে সৌদি আরবের প্রতি মার্কিন সমর্থন অব্যাহত থাকবে।

তবে বিশ্লেষকরা মনে করছেন, প্রস্তাবটি প্রতিনিধি পরিষদে পাস হোক বা না হোক এর মাধ্যমে মার্কিন সরকারের প্রতি একটি বার্তা দেওয়া হলো। কারণ ট্রাম্প প্রশাসন নির্লজ্জভাবে ইয়েমেনে হামলায় সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, মার্কিন সিনেট এমন সময় এই প্রস্তাব পাস করলো যখন ইয়েমেনের সাধারণ মানুষের ওপর নির্বিচার হামলা চালানোয় সৌদি আরবের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী সমালোচনা বাড়ছে।