advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 15 মিনিট আগে

ইউরোপের সবচেয়ে বড় এবং বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম হাসপাতালের উদ্বোধন করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ান। রাজধানী আঙ্কারায় নির্মিত দ্য বিলকেন্ট সিটি হসপিটাল নামের ওই হাসপাতালটি বৃহস্পতিবার উদ্বোধন করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট।

erdoan turkey hospital

দেশটির সরকারি গণমাধ্যম আনাদলুর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাসপাতালের সম্পূর্ণ কাজ শেষ হতে আরও সময় লাগবে। নির্মাণকাজ শেষ হলে এটি হবে বিশ্বের তৃতীয় বৃহৎ হাসপাতাল। হাসপাতালের বেড সক্ষমতা থাকবে ৩ হাজার ৬৩৩টি। এছাড়া ১৩১টি অপারেশন কক্ষ এবং ৯০৪টি বহিরাগত চিকিৎসাকেন্দ্র থাকবে।

দি বিলকেন্ট সিটি হসপিটাল নামের ওই হাসপাতাল দৈনিক ৩০ হাজার রোগী গ্রহণ করতে পারবে এবং আট হাজার রোগীকে জরুরী সেবা দিতে পারবে। হাসপাতালটিতে তুরস্কের সবচেয়ে ল্যাবরেটরি স্থাপিত হবে। এছাড়া থাকবে দুটি হেলিপ্যাড।

হাসপাতালটিতে বর্তমানে কার্ডিওভাসকুলার সার্জারি, নিউরোলোজি, অনকোলজি, অর্থপেডিকস ও সাধারণ শাখা রয়েছে। এতে ১৩১টি অপারেশন কক্ষ এবং ৯০৪টি পলিক্লিনিকের পাশাপাশি থাকছে ৩ হাজার ৭০৪টি শয্যা।

তুরস্কের নবম এ সিটি হাসপাতালটি পুরোদমে চালু হলে দিনে ৩০ হাজার রোগী এবং ৮ হাজার এমার্জেন্সি (জরুরি) রোগীর চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হবে।

এ ছাড়াও হাসপাতালটিতে থাকবে তুরস্কের সর্ববৃহৎ ল্যাবরেটরি। সেইসঙ্গে রোগী আনা-নেওয়ার জন্য থাকবে দুটি হেলিপোর্ট।

হাসপাতালটি উদ্বোধন করে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘প্রতিরক্ষা খাতে যেমন আমরা উন্নয়ন করেছি তেমনি মেডিসিন ও মেডিকেল প্রযুক্তিতে বিদেশ নির্ভরতা থেকে আমাদের দেশকে অবশ্যই রক্ষা করতে হবে।’

বিলকেন্ট সিটি হাসপাতাল এলাকায় ৬০০ একর জমিতে হেলথ ভ্যালি ও টেকনোলজি ডেভেলপমেন্ট জোন স্থাপনেরও ঘোষণা দেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

sheikh mujib 2020