advertisement
আপনি দেখছেন

তুরস্কের ওপর সম্ভাব্য হামলার অংশ হিসেবে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের দুটি মসজিদে হামলা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান। তবে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, 'কেউ যদি তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরে হামলার চেষ্টা চালায় তাহলে হামলাকারীদের কফিন নিয়ে ফিরতে হবে।'

erdoan turkey president 2

নিউজিল্যান্ডে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার আগে ব্রেনটন টেরেন্ট নামের সেই উগ্র খ্রিস্টান সন্ত্রাসী এক মেনিফেস্টোতে তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরকে খ্রিস্টানদের সম্পত্তি বলে দাবি করেন। শহরটি তুরস্কের হাত থেকে উদ্ধার করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন। পাশাপাশি তুর্কি প্রেসিডেন্টকে যুদ্ধবাজ নেতা বলে উল্লেখ করেন।

তুরস্কের ইস্তাম্বুলকে লক্ষ্য করে ওই সন্ত্রাসী বলেন, 'আমরা ইস্তাম্বুলের প্রতিটি মসজিদ ও মিনার ধ্বংস করব। হাজি সোফিয়াকে মিনার থেকে মুক্ত করা হবে এবং কনস্টান্টিনোপল খ্রিস্টানদের দখলে নিয়ে আসা হবে।'

সোমবার অটোমান সেনাদের হাতে ব্রিটিশ সেনাদের পরাজয়ের বার্ষিকী স্মরণে বক্তব্য দেন এরদোয়ান। সেখানে তিনি বলেন, 'আমরা এই শহরে হাজার বছর ধরে আছি। কিয়ামত পর্যন্ত থাকব ইনশাল্লাহ। ইস্তাম্বুলকে কনস্টান্টিনোপলে পরিণত করার স্বপ্ন বাদ দাও। তোমাদের দাদারাও পারেনি, বরং তারা লাশ হয়ে ফিরে গেছে। কোনো সন্দেহে নেই আগামীতে যারা আসবে তাদের লাশ বানিয়ে ফেরত পাঠানো হবে।'

সন্ত্রাসী হামলার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করে এরদোয়ান বলেন, 'আশা করছি, নিউজিল্যান্ড সরকার বিষয়টিতে গুরুত্ব দিবে। পশ্চিমা দেশগুলোর মতো বিষয়টিকে হাল্কাভাবে নেয়া যাবে না। নিউজিল্যান্ডের এই ঘাতক ২০১৬ সালে দুইবার তুরস্কে এসেছিল। কাজেই আমরা বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছি।'