advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 32 মিনিট আগে

দীর্ঘদিন ধরেই রাশিয়া, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার ত্রিপক্ষীয় কূটনৈতিক লড়াই দেখছে বিশ্ব। নানা কারণে এই তিনদেশ একে অপরের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। এবার জানা গেল, মার্কিন কমান্ডো বাহিনী চীনের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য যুদ্ধের মহড়া চালিয়েছে। এমন ঘটনা চীন ও যুক্তরাষ্ট্রকে ঘিরে থাকা উত্তেজনার পারদকে অনেকখানি বাড়িয়ে দিয়েছে।

us fight practise

যুক্তরাষ্ট্র মূলত একটি দ্বীপ দখলের মাধ্যমে ভারত এবং প্রশান্ত মহাসাগরে চীনের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য যুদ্ধের মহড়া চালিয়েছে। মহড়ার অংশ হিসেবে মার্কিন কমান্ডো বাহিনী তাদের মিত্র দেশ জাপানের একটি ক্ষুদ্র দ্বীপ দখল করেছে। মহড়ায় রাডার ফাঁকি দিতে সক্ষম বা স্টেলথ এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান বহর এবং রকেট নিক্ষেপকারী গোলন্দাজ ইউনিট কাজে লাগিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

জানা গেছে, মহড়ার অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের মেরিন, সেনা এবং বিমান বাহিনীর সদস্যরা জাপানের লি জিমা দ্বীপ বেশ দাপটের সঙ্গেই দখল করে। ঘাঁটি দখলের অভিযান হিসেবে পরিচিত এক্সপিডিশন অ্যাডভানস বেজ অপারেশন্স বা ইএবিও নামের এমন মহড়া দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর আর চালানো হয়নি।

মার্কিন মেরিন কোর বলছে, দ্বীপের থাকা অনুমান নির্ভর বিমানক্ষেত্র দখলের জন্য ছয়শ' মাইল জুড়ে সেনা মোতায়েন করা হয়েছিল। সেই কল্পিত বিমানঘাঁটি দখলের পর এফ-৩৫বি যুদ্ধবিমান এবং সি-১৩০ সুপার হারকিউলিস বিমান নামানোর ব্যবস্থা নেয়া হয়। বলা হচ্ছে, ভারত এবং প্রশান্ত মহসাগরীয় অঞ্চলে চীনের প্রভাব কমানোর জন্য দ্বীপদখলের এবং শক্তি প্রদর্শনের জন্য কৌশলগত এই মহড়া চালায় যুক্তরাষ্ট্র।

sheikh mujib 2020