আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 23 মিনিট আগে

সিরিয়ার গোলান মালভূমির দখলকৃত অংশে ইসরায়েলের সার্বভৌমত্বের স্বীকৃতি দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে ডিক্রি সই করেছেন তাকে ‘চূড়ান্তভাবে প্রত্যাখ্যান’ করেছেন সৌদি বাদশা সালমান। সেইসঙ্গে পূর্ব জেরুজালেমকে ফিলিস্তিনের রাজধানী করে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে ‘দ্বিরাষ্ট্র সমাধান’র বিষয়টিও পুনর্ব্যক্ত করেন।

golan height syrian soldiers

রোববার তিউসিয়ায় আরব লীগের এক প্রগ্রামে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

রুশ গণমাধ্যম আরটি এক প্রতিবেদনে বলেছে, সৌদি বাদশার এ মন্তব্য ট্রাম্পের জন্য একটি বড় ধরনের ধাক্কা। সোমবার ট্রাম্প এক ডিক্রিতে সই করেন, যেখানে গোলান মালভূমির দখলকৃত অংশকে ইসরায়েলের ভূমি হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরায়েল যুদ্ধে সিরিয়ার গোলান মালভূমির দুই-তৃতীয়াংশ দখল করে নেয় ইসরায়েল। কিন্তু আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় তাতে আজ পর্যন্ত স্বীকৃতি দেয়নি।

গণমাধ্যটি বলছে, এ ছাড়া পূর্ব জালেমকে রাজধানী করে ফিলিস্তিনি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার বিষয়টি সৌদি বাদশা পুনঃনিশ্চিত করায় ট্রাম্পের জন্য আরেকটি চিন্তার বিষয়। কারণ গত বছর তিনি পুরো পূর্ব জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করেন এবং মার্কিন দূতাবাস তেলআবিব থেকে সরিয়ে জেরুজালেমে নিয়ে যান।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২ অক্টোবর সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে রাজপরিবারের নির্দেশে হত্যার পর থেকে দুই দেশের মধ্যে কিছুটা মান অভিযান চলছে।