advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 59 মিনিট আগে

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের প্রথম ধাপে কেন্দ্র শাসিত ১০টিসহ ২০ রাজ্যের ৯১ আসনে ভোট গ্রহণ চলছে। সকাল ৭টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। চলতি লোকসভা নির্বাচন সাত ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনকে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দল বিজেপির জন্য ‘অগ্নিপরীক্ষা’ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

voting started in india

ভারতের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে (লোকসভা) মোট ৫৪৩টি আসন রয়েছে। এর মধ্যে অন্ধ্র প্রদেশ, তেলেঙ্গানা, উত্তরাখন্ড, সিকিম, অরুণাচল প্রদেশ, মেঘালয়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, আন্দামান, নিকোবার ও লৌক্ষ্ম দ্বীপের সব আসনে ভোট হচ্ছে। তবে পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে মাত্র দুটি আসনে ভোট হচ্ছে।

ভারতের নির্বাচন কমিশনের তথ্য মতে, দ্বিতীয় থেকে সপ্তম ধাপের নির্বাচন যথাক্রমে ১৮, ২৩ ও ২৯ এপ্রিল এবং ৬, ১২ ও ১৯ মে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ভোট দিবেন দেশটির প্রায় ৯০ কোটি মানুষ।

indias national election

গেল ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে মোদির দল বিজেপি বিস্ময়কর জয় নিয়ে ভরতের ক্ষমতায় এসেছিল। ফলে এবারের নির্বাচনকে তার সরকারের জন্য ‘অগ্নিপরীক্ষা’ হিসেবেই বিবেচনা করা হচ্ছে। কেননা, ক্ষমতায় টিকে থাকতে হলে ২৭২ আসনে জয় পেতে হবে। অন্যথায় জোট গঠন করে সরকার পরিচালনা করতে হবে মোদিকে।

এবারের নির্বাচনে বিজেপির মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে ভারতীয় উপমহাদেশের সবচেয়ে পুরানো দল ভারতীয় কংগ্রেসের, যার নেতৃত্ব দিচ্ছেন রাহুল গান্ধী।

ভারতে লোকসভা বা সংসদের নিম্ন কক্ষে মোট ৫৪৩টি আসন রয়েছে। সরকার গঠন করতে কোনো দল বা জোটের কমপক্ষে ২৭২টি আসন প্রয়োজন হয়।

মোদির সমর্থকরা বলছেন, গুজরাটের রাজ্যের চা বিক্রেতার ছেলে দেশের অবস্থানের উন্নতি করেছেন। কিন্তু সমালোচকরা বলছেন, তার দলের হিন্দু জাতীয়তাবাদ ভারতে ধর্মীয় উত্তেজনা বৃদ্ধি করেছে।

ভারত বিশ্বের দ্রুততম ক্রমবর্ধমান অর্থনীতির অন্যতম দেশে পরিণত হলেও অর্থনীতিতে মোদির নেতৃত্বাধীন সরকারের কর্মদক্ষতা সমালোচনার মুখে পড়েছে।

বিরোধী দল কংগ্রেসের তাদের নির্বাচনী ইশতেহারের কর্মক্ষেত্র সৃষ্টির পরিকল্পনাকে অগ্রাধিকার দিয়েছে। এছাড়া এটি দরিদ্র পরিবার ও কৃষকদের জন্য ভর্তুকি কর্মসূচি গ্রহণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

sheikh mujib 2020