advertisement
আপনি দেখছেন

২০১৪ সালে ইরাকের তিকরিতে দেশটির সেনাবাহিনীর দেড় হাজারের অধিক সৈন্যকে হত্যার অভিযোগে ৪০ জনকে মৃত্যুদণ্ডের রায় দেয়া হয়েছে। 'আইএস' সদস্যরা এই হত্যাযজ্ঞ চালায়। গণহত্যার শিকার হওয়া অধিকাংশই শিয়া মুসলমান ছিলেন।

Genocide in Iraq

বিবিসি জানায়, ২০১৪ সালে ইরাকে সাবেক মার্কিন ঘাঁটি ক্যাম্প স্পেইচারে 'ইসলামিক স্টেট'-এর (আইএস) সদস্য গণহত্যা চালায়। পরে 'জঙ্গিগোষ্ঠী' হিসেবে পরিচিত সংগঠনটি নির্মম গণহত্যার স্থির ও ভিডিওচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বাগদাদের আদালত মৃত্যুদণ্ডের ঘোষণা দেন। আদালত জানায়, সন্ত্রাসবিরোধী আইনে অভিযুক্তদের এই সাজা দেয়া হয়েছে।

২০১৫ সালে ইরাক আইএস-এর কাছ থেকে তিকরিত পুনরুদ্ধার করে। তিরকিতে কয়েক হাজার লোকের গণকবরের সন্ধান পায় ইরাক সরকার। পরে হত্যার দায়ে সন্দেহভাজন হিসেবে বেশ কিছু লোককে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হয়।

বিচার বিভাগের মুখপাত্র জানান, গণহত্যার অভিযোগে অভিযুক্ত ৪৭ আসামির মধ্যে ৭ জনকে মুক্তি দেয়া হয়েছে এবং ৪০ জনের মৃত্যুদণ্ডের রায় দেয়া হয়েছে। জানা যায় আসামিরা সকলেই ইরাকি নাগরিক।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

বিদেশি কর্মী নেয়া বন্ধ করে দিলো মালয়েশিয়া

নরওয়ের গোপন গুহায় আমেরিকার ট্যাংক মোতায়েন

পালিয়ে যাওয়া সেনাদের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করলেন আসাদ

sheikh mujib 2020