advertisement
আপনি দেখছেন

উত্তর কোরিয়া দাবি করেছে, দেশটি একটি স্যাটেলাইট কেন্দ্রে ‘খুবই গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা’ চালিয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ-এর বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, এ পরীক্ষার ফলে উত্তর কোরিয়ার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার কৌশলগত অবস্থান আরো সমৃদ্ধ হলো বলে দাবি করছে দেশটি।

kim jong un 3উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং-উন

তবে সোহে স্যাটেলাইট কেন্দ্র থেকে কী পরীক্ষা চালানো হয়েছে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি দেশটি। বিশ্লেষকদের ধারণা, স্যাটেলাইট লঞ্চারের শক্তি প্রদানকারী কোনো ইঞ্জিন বা আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে থাকতে পারে উত্তর কোরিয়া। এর আগে সেখান থেকে দূরপাল্লার একাধিক রকেট উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল।

পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিষয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে যখন পিয়ংইয়ংয়ের আলোচনার সম্ভাবনা অনেকটা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে তখনই এ পরীক্ষা চালানো হলো।

শনিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, তিনি এ বিষয়ে উত্তর কোরিয়ার সাথে চুক্তিতে এখনো আশাবাদী।

তবে একই দিনে জাতিসংঘে উত্তর কোরিয়ার প্রতিনিধি কিম সং এক বিবৃতিতে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের বিষয় নিয়ে দীর্ঘ আলোচনার আর কোনো সম্ভাবনাই দেখছেন না তারা।

এ বছরের মাঝামঝি সময় থেকে এখন পর্যন্ত ১৩টি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসার জন্য একের পর এক স্যাটেলাইট ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে দেশটি।

গত মাসের শেষ দিকে উত্তর কোরিয়া আমেরিকাকে সতর্ক করে বলে, ওয়াশিংটন যদি ওই সময়সীমা অতিক্রম করে, তা হলে তারা মারাত্মক ভুল করবে।