advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 27 মিনিট আগে

ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের ফলে দেশটি থেকে লাখ লাখ মুসলিম পালিয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মঙ্গলবার জেনেভায় শরণার্থী বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে ‘মুসলিমবিরোধী’ এ আইন নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে ইমরান খান এ কথা বলেন।

imran khan pak pm 1পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

ইমরান বলেন, এ আইনের ফলে দক্ষিণ এশিয়ায় নতুন করে শরণার্থী সঙ্কটের ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে। বড় ধরনের সঙ্কট সৃষ্টি হলে পারমাণবিক শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে যুদ্ধ লেগে যেতে পারে। তাই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের এখনই নজর দেয়া উচিত।

পাকিস্তানে নতুন করে শরণার্থীদের জায়গা দেয়া সম্ভব নয় জানিয়ে তিনি বলেন, এখনই যদি ভারতের ওপর চাপ প্রয়োগ করা যায়, তাহলে হয়তো এ সঙ্কট এড়ানো সম্ভব। কারণ ‘অসুখের চিকিৎসার চেয়ে, অসুখ যাতে না হয় সে ব্যবস্থা গ্রহণ করাই উত্তম।’

মার্কিন গণমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ৪০ বছর ধরে পাকিস্তানে প্রায় ১৫ লাখ আফগান শরণার্থী বসবাস করে আসছে।

এর আগে গত বুধবার ভারতীয় রাজ্যসভায় ‘মুসলিমবিরোধী’ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি পাশ করিয়ে নেয় বিজেপি সরকার। পরদিন বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতি সাক্ষর করার মধ্য দিয়ে বিলটি আইনে পরিণত হয়। এর মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে ভারতে আসা অমুসলিমদের নাগরিকত্ব পাওয়ার সুযোগ করে দেয়া হয়। 

১৯৫৫ সালে পাশ হওয়া নাগরিকত্ব আইনে উল্লেখ ছিল, অন্য দেশ থেকে ভারতে আসা কেউ যদি নাগরিকত্ব চায় সেক্ষেত্রে তাকে কমপক্ষে ১১ বছর এ দেশে বসবাস করতে হবে। সেইসঙ্গে এর পক্ষে যথেষ্ট প্রমাণ ও নথিপত্র উপস্থাপন করতে হবে। কিন্তু সংশোধিত নতুন আইনে ভারতে টানা ৫ বছর ধরে থাকা অমুসলিমরাও নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য অবেদন করতে পারবেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

sheikh mujib 2020