advertisement
আপনি দেখছেন

এবার ইরাক থেকে জনবল সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে আমেরিকা। দেশটিতে নিযুক্ত জনশক্তির একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ স্থায়ীভাবে দেশে ফিরিয়ে নেবে মার্কিন সরকার।

us ambassy bagdad

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর এ পরিকল্পনা নিয়েছে বলে বুধবার খবর দিয়েছে দেশটির টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন।

গণমাধ্যমটি বলছে, এ বিষয়ে তাদের হাতে যে ডকুমেন্ট এসে পৌঁছেছে তাতে বলা হয়েছে, আগামী বছরের মে মাসের মধ্যে ইরাক থেকে শতকরা ২৮ ভাগ জনশক্তি দেশে ফিরিয়ে নেয়া হবে। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর সিনেটের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির কাছে একটি চিঠিও দিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে পার্সটুডে বলছে, ইরাকে মার্কিন জনশক্তি কমিয়ে দিলে বাগদাদে আমেরিকার দূতাবাসে কর্মীর সংখ্যা দাঁড়াবে ১১৪ জনে। এ ছাড়া বাগদাদের ডিপ্লোমেটিক সাপোর্ট সেন্টারে থাকবে ১৫ জন এবং এই কনস্যুলেট জেনারেলে থাকবে আট কর্মকর্তা-কর্মচারী।

ইরাক থেকে যে জনশক্তি কমানোর পরিকল্পনা নিয়েছে মার্কিন সরকার তার ভেতরে প্রতিরক্ষা বিভাগ এবং ইউএসএআইডির লোকজনও থাকবে। সিনেটকে লেখা ওই চিঠিতে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর বলেছে, ইরাকে কর্মী সংখ্যা কমানোর পরও অবশিষ্ট লোকজন মার্কিন প্রশাসনের মৌলিক লক্ষ্য-উদ্দেশ্য হাসিল করতে সক্ষম হবে।