advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের উত্তর প্রদেশের সোনভদ্র জেলায় মাটির নিচে দুটি স্বর্ণের খনির সন্ধান পেয়েছেন ভূ-তাত্ত্বিক বিজ্ঞানীরা। এই দুটি খনিতে প্রায় ৩ হাজার টন স্বর্ণ মজুদ আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ভারতে স্বর্ণের বর্তমান দাম অনুযায়ী যার বাজার মূল্য ১২ লাখ কোটি রুপি এবং বর্তমানে দেশটিতে মজুদ স্বর্ণের পরিমাণের চেয়ে যা পাঁচগুণেরও বেশি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকা।

gold found inground

প্রতিবেদনে বলা হয়, জিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া খনিজ সম্পদের অনুসন্ধানে দীর্ঘদিন ধরে মাটি খনন করে আসছে। সম্প্রতি সোনভদ্র জেলার সোন পাহাড়ি ও হরদি ব্লক এলাকায় দুটি স্বর্ণের খনির সন্ধান পানা তারা। পরে গবেষণা করে ধারণা করা হয়, সোন পাহাড়ির খনিতে ২ হাজার ৯৪৩ টন এবং হরদি ব্লক এলাকার খনিতে প্রায় ৬৪৬ হাজার টন স্বর্ণ মজুদ রয়েছে।

ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিলের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে ভারতে ৬২৬ টন স্বর্ণ সংরক্ষিত রয়েছে। সে হিসাবে ওই দুটি খনিতে পাওয়া স্বর্ণ দেশটির সংরক্ষিত স্বর্ণের প্রায় পাঁচ বেশি। এ ছাড়া বর্তমানে ভারতের স্বর্ণের বাজার মূল্য অনুযায়ী এর দাম দাঁড়ায় প্রায় ১২ লাখ কোটি রুপি। খুব শিগরিই টেন্ডারের মাধ্যমে এ স্বর্ণ নিলাম করা হবে।

প্রসঙ্গত, ব্রিটিশ শাসনামলেই সোনভদ্রে প্রথম স্বর্ণ খোঁজার কাজ শুরু হয়। ব্রিটিশদের বিদায়ের পর ১৯৯২ সালের দিকে ভারত সরকার সেখানে খোঁড়াখুড়ি শুরু করে। তারপর থেকে দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে সেখানে স্বর্ণের সন্ধান চালিয়ে যায় ভূ-তাত্ত্বিক বিজ্ঞানীর। যার ফলস্বরূপ সম্প্রতি সেখানে এই দুটি খনির সন্ধান পাওয়া যায়।