advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের উত্তর প্রদেশে বাবরি মসজিদ ভেঙে রামমন্দির নির্মাণের পক্ষে রায় দিয়েছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। সেইসঙ্গে মসজিদ নির্মাণের জন্য অন্যত্র জমি দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে রায়ে। শুরুতে এই প্রস্তাব না মানলেও অন্যত্র জমি নিতে রাজি হয়েছে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড। 

babri masjid india

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, প্রথমদিকে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের আপত্তি থাকলেও শুক্রবার তারা জমি নিতে রাজি বলে জানিয়েছে।

গত বছরের ৯ নভেম্বর বাবরি মসজিদের জমি নিয়ে রায় দেয় ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। এতে বলা হয়, মসজিদের ২ দশমিক ৭৭ একর জমিতে তৈরি হবে রামমন্দির। আর মসজিদ নির্মাণের জন্য মুসলিম পক্ষকে অযোধ্যারই অন্যত্র ৫ একর জমি দেয়া হবে।

সুপ্রিম কোর্টের রায় অনুযায়ী, অযোধ্যার ২০ কিলোমিটার দূরে রৌনাই টাউনশিপের মধ্যে ধান্নিপুর গ্রামে দেওয়া হয় ওই ৫ একর জমি।

খবরে বলা হয়েছে, সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড জানায়, আদালতের রায় অমান্য করার এখতিয়ার আমাদের নেই। তাই আমরা সম্মতি জানিয়েছি।

উল্লেখ্য, ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের ফৈজাবাদ জেলার অযোধ্যা শহরের রামকোট হিলে ১৫২৭ সালে বাবরি মসজিদ নির্মিত হয়। ১৯৯২ সালে ভারতের হিন্দুত্ববাদী সংগঠন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ, রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ ও বিজেপি ওই স্থানে মসজিদ নির্মাণের পূর্বে রাম মন্দির ছিল দাবি করে মসজিদটি ভেঙে দেয়। 

এরপর ২০১০ সালে এলাহাবাদ হাইকোর্ট সঙ্কট সমাধানের উদ্দেশ্যে ওই চত্বরকে তিন ভাগে ভাগ করে এক-তৃতীয়াংশ মুসলিম সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড ও অন্য অংশ নির্মোহী আখড়া হিন্দু সংগঠনকে দেয়। কিন্তু এই সমাধানকে প্রত্যাখ্যান করে সমগ্র চত্বরের দাবি জানায় হিন্দু সংগঠনগুলো। সেইসঙ্গে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করে।