advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কটাক্ষ এবং দিল্লির সংঘর্ষ নিয়ে সামাজিক যোগযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগে আসামের এক অধ্যাপককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার আসাম রাজ্যের ইটখোলার নিজ বাড়ি থেকে সৌরদীপ সেনগুপ্ত নামের ওই অধ্যাপককে গ্রেপ্তার করা হয়।

sourdeep sengupta proffesor

সৌরদীপ আসামের শিলচর এলাকার গুরুচরন কলেজের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের একজন অতিথি শিক্ষক। গত শুক্রবার ওই কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থী সৌরদীপের নামে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। এ অভিযোগের প্রেক্ষিতেই পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে এবং আদালতের মাধ্যমে চার দিনের জেল হাজতে পাঠায়।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই শিক্ষার্থীরা সৌরদীপের নামে অভিযোগ করেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, বিজেপি ও দলটির আদর্শ গুরু 'রাষ্ট্রীয় স্বেচ্ছাসেবক সংঘ আরএসএস' এবং সনাতন ধর্মকে কটাক্ষ করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তাই তার নামে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত, হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে বিদ্বেষ ছড়ানোসহ বিভিন্ন অপরাধে বেশ কয়েকটি ধারায় মামলা করেন তারা।

তবে সৌরদীপের পরিবারের দাবি, একটি বিশেষ ছাত্র সংগঠন ওই অধ্যাপকের বিরোধিতা করছে এবং গত শুক্রবার সন্ধ্যায় জোর করে বাড়িতে ঢুকে সবাইকে হুমকি দিয়ে গেছে।

এদিকে, সৌরদীপকে গ্রেপ্তারের আগেই ফেসবুক থেকে ওই স্ট্যাটাসটি সরিয়ে ফেলেছেন তিনি। পাশাপাশি হিন্দু ধর্মালম্বীদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার জন্য ক্ষমা চেয়ে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।