advertisement
আপনি দেখছেন

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সুচিকে দেওয়া সম্মাননা কেড়ে নিলো লন্ডন সিটি করপোরেশন (সিএলসি)। রাখাইনে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর নিপীড়নের ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার এমন সিদ্ধান্ত নেয় লন্ডন কর্তৃপক্ষ। এর আগে ২০১৭ সালের মে মাসে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার জন্য কাজ করায় সুচিকে এই সম্মাননা দেওয়া হয়। খবর আল জাজিরার।  

suki london

সিএলসি কর্তৃপক্ষের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের ভোটেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে- জানিয়ে লন্ডন সিটি করপোরেশন কমিটির প্রধান ডেভিড উট্টন বলেন, অভূতপূর্ব যে সিদ্ধান্তটি নেয়া হয়েছে সেটি মিয়ানমারের মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য সিটি করপোরেশনের নিন্দার প্রতিচ্ছবি।

মিয়ানমারে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর নিপীড়নের প্রতিবাদে এর আগেও সুচিকে দেওয়া বেশ কিছু সম্মাননা প্রত্যাহার করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে- কানাডার পার্লামেন্টের সম্মানসূচক নাগরিকত্ব, ব্রিটেনের অক্সফোর্ড শহরের সম্মাননা, গ্লাসগো নগর কাউন্সিলের ফ্রিডম অফ সিটি খেতাব, লন্ডনভিত্তিক সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের দেওয়া সম্মাননা।   

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের আগস্ট মাসে মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে রোহিঙ্গাদের ওপর ভয়াবহ নির্যাতন চালায় দেশটির সেনাবাহিনী। ওই সময় বাংলাদেশ পালিয়ে আসে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও সংস্থার পক্ষ থেকে এই নিপীড়ন বন্ধ করার আহ্বান জানানো হলেও তাতে কর্ণপাত করেনি মিয়ানমার সরকার।

নিপীড়নের এই অভিযোগ শুধু অস্বীকার করা নয়, বরং এর পক্ষে সাফাই গেয়েছেন শান্তিতে নোবেলজয়ী সুচি।