advertisement
আপনি দেখছেন

দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম নিজের মেয়েদের অপহরণের পাশাপাশি স্ত্রীকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছিলেন। তার বিরুদ্ধে আনা সাবেক স্ত্রী প্রিন্সেস হায়া বিনতে আল-হোসাইনের এমন অভিযোগ প্রমাণ করেছে ব্রিটিশ আদালত। গত বছর দুই সন্তানকে নিয়ে যুক্তরাজ্যে পালিয়ে যান প্রিন্সেস হায়া। সেখানে গিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি।  

ruler wife

আট মাস আগে ব্রিটিশ হাইকোর্টে এই ‘হাই-প্রোফাইল’ মামলার কার্যক্রম শুরু হয়। অনুসন্ধানী তদন্ত, সাক্ষ্য-প্রমাণ ও শুনানি শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার অভিযোগের সত্যতা পায় আদালত।

এদিকে, ব্রিটিশ আদালতের এ রায় যেন জনসমক্ষে প্রকাশ না হয়, সেজন্য আবেদন করেছিলেন শেখ মোহাম্মদ। কিন্তু তার আপিল প্রত্যাখ্যান করে আদালত।

রায় প্রকাশের পর মামলাটিকে ‘একান্ত ব্যক্তিগত’ হিসেবে বর্ণনা করে এই দুবাই শাসক গণমাধ্যমের প্রতি অনুরোধ করেন, যেন তার সন্তানদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তার প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকে এবং তাদের যুক্তরাজ্যের জীবনে অনুপ্রবেশ না করে।

তিনি আরও বলেন, ‘একটি দেশের সরকারপ্রধান হিসেবে আমি আদালতের তথ্য অনুসন্ধানী প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পারিনি। ফলে যে রায় প্রকাশিত হয়েছে, তা একপেশে।’

যুক্তরাজ্যে পালিয়ে যাওয়ার পর শেখ মোহাম্মদ স্ত্রী হায়াকে ‘তুমি ও সন্তানরা যুক্তরাজ্যে কখনোই নিরাপদ থাকবে না’ বলে হুমকি দিয়েছিলেন। একই সময়ে দুবাইয়ের এই শাসক স্ত্রীর বিরুদ্ধে নেতিবাচক নিবন্ধ ছাপতে গণমাধ্যমের সঙ্গেও যোগাযোগ করেন। সব মিলিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার দেওয়া ব্রিটিশ আদালতের এ রায়কে দুবাইয়ের ধনকুবের শাসকের জন্য ‘তুমুল বিব্রতকর’ বলে অভিহিত করেছে বিবিসি।