advertisement
আপনি দেখছেন

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে বর্বর হামলা চালিয়ে ৫১ মুসল্লিকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে উগ্র শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী ব্রেন্টন টারান্ট। সেইসঙ্গে আরো ৪০ জনকে হত্যাচেষ্টার দায়ও স্বীকার করেছে সে।

brenton tarant newzeland mosque attackক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলাকারী ব্রেন্টন টারান্ট

গত বছরের ১৫ জুন স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র নিয়ে কাছাকাছি দুটি মসজিদে নৃশংস হামলা চালায় অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত ওই ডানপন্থী সন্ত্রাসী। এতে ৫১ মুসল্লি নিহত এবং ৪০ জন আহত হন। শুধু হত্যাই নয়, সেই ঘটনার লাইভ প্রচার করে সে। যা গোটা বিশ্বকে হতবাক করে।

বিবিসি বলছে, আজ বৃহস্পতিবার ক্রাইস্টচার্চ হাইকোর্টে সংক্ষিপ্ত পরিসরের শুনানিতে ব্রেন্টন তার দোষ স্বীকার করে। যদিও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশটিতে এখন লকডাউন চলছে।

খবরে বলা হয়েছে, এদিন শুনানিতে সাধারণ কাউকে থাকতে দেওয়া হয়নি। কারাগারে থাকা ব্রেন্টন ও তার আইনজীবীরা ভিডিও লিংকের মাধ্যমে শুনানিতে যুক্ত হয়। ঘটনার পর প্রথমে অভিযোগ অস্বীকার করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে ব্রেন্টন।

আদালত বলেছেন, প্রত্যেকটি অভিযোগেই ব্রেনটনকে দোষী সাব্যস্ত করে দণ্ড দেওয়া হবে।

এদিকে, ব্রেন্টন দোষ স্বীকার করায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন।