advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে চলছে লকডাউন। তবে এর মধ্যেই আংশিক দোকান-পাট চালু হচ্ছে। আজ মঙ্গলবার থেকেই দোকানিরা তাদের দোকান খোলার অনুমতি পেয়েছেন। গতকাল সোমবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল করোনাভাইরাসের কারণে দিল্লিজুড়ে যে লকডাউন চলছে তা শিথিল করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

delhi shops opening after easing lockdownলকডাউন শিথিলে খুলল দিল্লির দোকান

জানা যায়, লকডাউন শিথিল হয়ে যাওয়ায় আজ থেকেই রাজ্যের চিকিৎসক, ইলেক্ট্রিশিয়ান, মিস্ত্রিসহ যারা সেবাদান কাজে জড়িত তারা কাজ শুরু করতে পারবেন।

দিল্লির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ থেকেও ওষুধের দোকান, ক্লিনিক, প্যাথলজি ল্যাব, ভ্যাকসিন ও ওষুধ কেনা-বেচার অনুমতি দেয়া হয়েছে। এছাড়া ওল্ড হোম, চাইল্ড হোম এবং শারীরিক ও মানসিক প্রতিবন্ধীদের সেবাদানকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে তাদের কার্যক্রম পুনরায় চালু করার অনুমতি দেয়া হয়েছে।

লকডাউন শিথিল করার কারণে এখন থেকে দিল্লির রাস্তায় চিকিৎসক, বিজ্ঞানী, নার্স, প্যারামেডিকেল কর্মী, ল্যাবের কর্মী এবং বিভিন্ন হাসপাতালের কাজে নিয়োজিত কর্মীরা স্বাভাবিক নিয়মে চলাচল করার সুযোগ পাচ্ছেন।

lockdown in indiaলকডাউন চলাকালীন ফাঁকা দিল্লির রাস্তা

তবে স্কুল কলেজ আগের মতোই বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে অনলাইনে ক্লাস নেয়ার জন্য উৎসাহ দেয়া হচ্ছে।

মরণঘাতী এই ভাইরাসটি দিল্লির যেসব স্থানে তীব্র সংক্রমণ ঘটিয়েছে সেখানে এসব সিদ্ধান্তের কোনোটিই বাস্তবায়িত হবে না, সেখানে আগের মতই লকডাউন বহাল থাকবে।

ভারতে এখন পর্যন্ত ভয়ঙ্কর এই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২৯ হাজার ৪৫১ জন। মারা গেছেন ৯৩৯ জন। সংক্রমণের পর সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ১৩৭ জন।

sheikh mujib 2020