advertisement
আপনি দেখছেন

কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানির সঙ্গে বৈঠক করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। বৈঠকে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক আরও দৃঢ় করার পাশাপাশি অর্থনীতি, বাণিজ্য, শক্তি ও প্রতিরক্ষা খাতে একে অপরকে সহযোগিতা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন দুই নেতা। 

qatar amir and erdoganকাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানির সঙ্গে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান (বামে)

কাতারি গণমাধ্যম গালফ টাইমসের বরাতে জানা যায়, তুরস্ক ও কাতারের মধ্যে সম্পর্কের বন্ধন মজবুত ও দুই দেশের প্রত্যেকটি খাতে উন্নয়নের লক্ষ্যে কাতার আমির ও তুর্কি প্রেসিডেন্ট বৈঠক করেছেন। বৈঠকে দুই দেশের মন্ত্রীরাও উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া তারা মধ্যপ্রাচ্যের চলমান অস্থিরতা, বিশেষ করে ফিলিস্তিন, লিবিয়া, সিরিয়া ও ইয়েমেন নিয়ে আলোচনা করেছেন। উভয়ই নিজেদের ব্যক্তিগত মতামত তুলে ধরেছেন। এসব অঞ্চলে শান্তি স্থায়ীকরণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা হয়েছে বৈঠকে।

qatar amir and erdogan01কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানির সঙ্গে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান (বামে)

গালফ টাইমস বলছে, আনুষ্ঠানিক সেই বৈঠকের পর কাতার আমিরের আমন্ত্রণে তুর্কি প্রেসিডেন্ট নৈশভোজে অংশগ্রহণ করেন। যা কাতারের রাজ প্রাসাদ দ্য পার্ল প্যালেসে অনুষ্ঠিত হয়।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর পর এটিই তুর্কি প্রেসিডেন্টের প্রথম সফর। আর প্রথম সফরে তিনি গেলেন কাতারে। দেশটি তুরস্কের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ মিত্র হিসেবে পরিচিত।

গালফ টাইমস বলছে, তুর্কি-কাতারি সম্পর্ক হলো পারস্পরিক সম্প্রীতি ও বোঝাপড়ার একটি রোলমডেল। কাতারের ওপর আরোপিত সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিশরের দেয়া নিষেধাজ্ঞার পর এই সম্পর্কের আরো উন্নতি হয়েছে।

গত কয়েক বছরে দুই দেশের বাণিজ্যেও অনেক উন্নতি হয়েছে। ভবিষ্যতে তা ক্রমশ বৃদ্ধি পেতে থাকবে বলে বিশ্বাস করেন দুই দেশের কূটনীতিকরা।

sheikh mujib 2020