advertisement
আপনি দেখছেন

বিশ্ব যেন তার গতিপথ হারিয়ে এক অন্ধকার গহ্বরে ভেতর ঢুকে পড়েছে। সেই অন্ধকার গহ্বরের নাম নভেল করোনাভাইরাস। প্রতিদিন যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাকে স্রেফ রেকর্ড বললে ভুল বলা হবে। মাত্র কয়েকদিন আগেও বিশ্বব্যাপী একদিনে এক লাখ সংক্রমণ কপালে ভাজ ফেলেছিল নীতিনির্ধারকদের। সেই সংক্রমণ এখন আড়াই লাখ ছুঁই ছুঁই। এই গতি কোথায় গিয়ে কমবে কিংবা থামবে, তা কেউ বলতে পারে না।

affect update 10april

চলতি মাসের ২ তারিখে বিশ্বব্যাপী একদিনে সংক্রমণ প্রথমবারের মতো ২ লাখ অতিক্রম করে। তারপর থেকে বাড়ছে হু হু করে। গতকাল ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ রোগী শনাক্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ২ লাখ ৩৬ হাজার ৯৫৮ জনে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটি সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ, যা আছড়ে পড়তে পারে আক্রান্ত প্রায় সব দেশে। অথচ টানা ৩ মাস ধরে যখন প্রতিদিন কমবেশি ১ লাখ মানুষ কোভিড-১৯ আক্রান্ত হতেন, তখন সেটাকেই সর্বোচ্চ বিবেচনা করেছিলেন অনেকে। 

বিশ্বজুড়ে প্রতিদিন যে পরিমান মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে, তার প্রায় ৩ ভাগের ১ ভাগই যুক্তরাষ্ট্রে। বলা যায়, এক যুক্তরাষ্ট্রে সংক্রমণ বাড়ার কারণেই মোট আক্রান্তের এমন উল্লম্ফন। গতকাল আগের সব সংক্রমণের রেকর্ড ভঙ্গ করেছে দেশটি। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৭১ হাজার ৭৮৭ জন। দেশটিতে সংক্রমণের মোট সংখ্যাটা বাড়তে বাড়তে ঠেকেছে প্রায় ৩৩ লাখে। প্রাণহানি ঘটেছে ১ লাখ ৩৬ হাজার ৬৭১ জনের।

africa update

করোনাময় পৃথিবীতে এই মুহূর্তে (বাংলাদেশ সময় শনিবার সকাল ৯টা) মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ২৬ লাখ ২৫ হাজার ১৫৫ জন। মৃত্যুবরণ করেছেন ৫ লাখ ৬২ হাজার ৭৬৯ জন। আরোগ্য লাভ করেছেন ৭৩ লাখ ৬০ হাজার ৯৫৪ জন। প্রায় ৬০ হাজার রোগী মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন।

sheikh mujib 2020