advertisement
আপনি দেখছেন

লেবাননের বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩০ জনের খোঁজ মেলেনি বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। মৃতের সংখ্যাও দিনে দিন বেড়ে ১৮০ তে গিয়ে পৌঁছেছে। শুক্রবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানায় সংস্থাটি।

beirut explosion12বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার দৃশ্য

এতে বলা হয়, বিস্ফোরণের কারণে বৈরুতের ৬টি হাসপাতাল, ২০টিরও বেশি ক্লিনিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে চিকিৎসকরা আহতদের চিকিৎসা দিতেও বিভিন্ন বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন। ঘটনাস্থলের ১৫ কিলোমিটারের মধ্যে ৫৫টি চিকিৎসাসেবা কেন্দ্র আছে। এর মধ্যে অর্ধেক বর্তমানে কার্যক্ষম। ৪০ শতাংশ বিস্ফোরণের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

জাতিসংঘ বলছে, বিস্ফোরণ পুরো বৈরুতের চিত্র পাল্টে দিয়েছে। হাসপাতাল ছাড়াও ১২০টি স্কুল পুনর্নিমাণের প্রয়োজন। ঘটনাস্থলের আশপাশের ১ হাজার বাড়িতে থাকা ৫০ হাজার মানুষ খোলা আকাশের নীচে বাস করছে।

beirut explosion 02 1বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার দৃশ্য

আল আরাবিয়া বলছে, ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করার জন্য আন্তর্জাতিক সাহায্যগুলো আসছে বৈরুত বন্দরে। কিন্তু বিস্ফোরণে এতই ক্ষতি করেছে যে বন্দরের মাত্র ৩০ শতাংশ কার্যক্ষম আছে। তাই সাহায্য সরঞ্জাম খালাস করতে দেরি হচ্ছে।

গত সপ্তাহের মঙ্গলবার সেই বিস্ফোরণে এখন পর্যন্ত ১৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে ৬ হাজারের অধিক মানুষ। গুরুতর আহত অবস্থায় অনেকেই চিকিৎসাধীন আছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। সংস্থাটির ধারণা মৃত্যুর সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

বিস্ফোরণের পর দেশটির রাজনৈতিক পরিস্থিতিও টালমাটাল হয়ে গেছে। তীব্র আন্দোলনের যেরে পদত্যাগ করতে হয়েছে গোটা সরকারকে।

sheikh mujib 2020