advertisement
আপনি দেখছেন

জার্মানি বার্লিনের চ্যারিটি হাসপাতালে দীর্ঘ ৩২ দিনের চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র পেয়েছেন রাশিয়ার বিরোধী রাজনীতিক আলেক্সি নাভালনি। জার্মান কর্তৃপক্ষ বলছে, তার নভিচোক নার্ভ এজেন্টের বিষক্রিয়া ছিল। তবে চিকিৎসকরা বলেছেন যে, তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠতে পারবেন।

alexei navalny newআলেক্সি নাভালনি

আজ বুধবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানায়, রাশিয়ার বিরোধী রাজনীতিকের অবস্থার যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে। তাই তাকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবারই তিনি হাসপাতাল ছেড়ে গেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রোগীর অগ্রগতি এবং বর্তমান অবস্থার ওপর নির্ভর করে চিকিৎসকরা বিশ্বাস করেন যে, তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠতে পারবেন। তবে বিষক্রিয়ার সম্ভাব্য দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব কী হবে সে সম্পর্কে এখনো কোনো কিছু পরিষ্কার নয়।

দ্য গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে, সাইবেরিয়ার ওমস্ক থেকে মস্কোর উদ্দেশ্যে যাওয়ার সময় বিমানে অসুস্থ হয়ে পড়েন আলেক্সি নাভালনি। এর দু'দিন পর তিনি চিকিৎসার জন্য বার্লিনে পৌঁছান। এর আগে দুই দিন ওমস্কের স্থানীয় এক হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। সেখানে অবশ্য স্থানীয় চিকিৎসকরা বলেছিলেন যে, তারা বিষক্রিয়ার কোনো প্রমাণ পাননি। যদিও তারা ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করেন যে এটা বিষক্রিয়া ছিল।

alexei navalnyআলেক্সি নাভালনি

প্রসঙ্গত, এক টুইটবার্তায় নাভালনির বিষক্রিয়ার খবর জানিয়েছিলেন তার মুখপাত্র কিরা ইয়ারমাইশ। তিনি বলেন, আকাশপথে সাইবেরিয়া থেকে রাজধানী মস্কোতে যাচ্ছিলেন নাভালনি। হঠাৎ পথিমধ্যে বিমানের ভেতরেই অচেতন হয়ে পড়েনে তিনি। সঙ্গে সঙ্গে ফ্লাইটটি জরুরি অবতরণ করে এবং নাভালনিকে ওমস্ক শহরের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

তিনি আরো জানান, হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলেছেন, বিষক্রিয়ার কারণে তার এমন অবস্থা হয়েছে। গরম তরলের সঙ্গে বিষময় জিনিস মিশিয়ে তাকে দেয়া হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, সকালে নাভানলির চায়ের সঙ্গেই বিষজাতীয় জিনিস মিশিয়ে দেয়া হয়েছে। কারণ ওই দিন সকলে শুধু চা পান করেছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ৪৪ বছর বয়সী এ নেতা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সমালোচনা ও রুশ সরকারের কর্মকর্তাদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন। এ জন্য তিনি দেশটির সর্বমহলে সুপরিচিত ছিলেন। তবে এবারই প্রথমবার নয়, এর আগেও বহুবার তার ওপর শারীরিক হামলা হয়েছিলো। ২০১৭ সালে এমনই এক হামলায় চোখে আঘাত পান তিনি।

sheikh mujib 2020