advertisement
আপনি দেখছেন

রাষ্ট্রীয়ভাবে ইসলামবিদ্বেষ ছড়িয়ে দেওয়ার কারণে বর্হিবিশ্বের চাপের মুখে আছে ফ্রান্স। এর মধ্যেই দেশটিতে তীব্র গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। সংখ্যার হিসেবে গত ২৭ অক্টোবরের সংক্রমণ ছাড়িয়ে গেছে আগের সব রেকর্ডকে। ভাইরাসটির দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ আবারও সারাদেশে পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করেছেন।

france president emmanuel macron 1ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) থেকে দ্বিতীয়বারের মতো এই লকডাউন কার্যকর হতে যাচ্ছে, বজায় থাকবে পুরো নভেম্বর পর্যন্ত। ইতোমধ্যেই বিভিন্ন স্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অবস্থান নিয়েছে বলে জানা গেছে। কড়া এই বিধিনিষেধের মধ্যে শুধু চিকিৎসার জন্য নাগরিকরা বাইরে যেতে পারবে। অন্য কোনো প্রয়োজনে বাইরে যেতে হলে একটি ফর্ম পূরণ করতে হবে। সংশ্লিষ্টরা তা দেখে অনুমতি দেবেন।

২৮ অক্টোবর (বুধবার) রাতে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এই লকডাউনের ঘোষণা দেন। ম্যাক্রোঁ বলেন, প্রথম দফায় আমরা যে করোনা মোকাবেলা করেছি, দ্বিতীয় দফার এই সংক্রমণ আরো কঠিন হবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই। বিষেশজ্ঞরা বারবার এমনটা বলে এসেছেন। আমি আমার নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানাতে চাই, লকডাউন বাস্তবায়নে পূর্ণ সহযোগীতা করুন।

sheikh mujib 2020