advertisement
আপনি দেখছেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রাথমিক গণনায় বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন সাবেক ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী জো বাইডেন। এরপর থেকে তাকে অভিনন্দন জানিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন। কিন্তু সেগুলো তিনি পাননি। এখনো যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জমা পড়ে আছে।

joe biden usজো বাইডেন

আজ বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্ট বিভাগের একাধিক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে সিএনএন। সেখানে অভিযোগ করে বলা হয়, বিজয়ী জো বাইডেনকে বিদেশি নেতাদের শুভেচ্ছা গ্রহণে বাধা দিচ্ছে ট্রাম্প প্রশাসন।

সিএনএন জানিয়েছে, নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে গত সপ্তাহে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বার্তা আসে। ঐতিহ্যগতভাবে সেগুলো নতুন প্রেসিডেন্টের কাছে পৌঁছে দেয়ার কথা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। কিন্তু ট্রাম্প প্রশাসন তা করেনি। বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রাথমিক ফল মেনে না নেয়াতেই এমনটা করছেন।

donald trump 01 1পরাজয় মেনে না নিয়ে এখনো আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

আর তাই বাধ্য হয়ে বাইডেনের লোকেরা ব্যক্তিগতভাবে জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মের্কেল ও কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোসহ বিশ্বের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছেন। এ কাজে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে কোনো ধরনের সহযোগিতা তারা পাননি বলে অভিযোগ উঠেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের লোকেরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের রিসোর্স ব্যবহার করতে চাইলেও সেখান থেকে বাধা দেয়া হচ্ছে। ফলে তারা এখন এই অপ্রত্যাশিত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার চেষ্টা করছেন।

কয়েকজন কূটনীতিক গণমাধ্যমটিকে জানান, মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বাধার কারণে তাদের নেতারা জো বাইডেনকে শুভেচ্ছা জানাতে পারছেন না। পরে অবশ্য বারাক ওবামা প্রশাসনের কূটনীতিকদের সহায়তা নিয়ে এ কাজ করা হচ্ছে।

sheikh mujib 2020