advertisement
আপনি দেখছেন

আমেরিকা ও তাদের মধ্যপ্রাচ্যের মিত্রদের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই বিশাল এক যুদ্ধজাহাজ প্রকাশ্যে আনলো ইরান। সম্পূর্ণ নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি এই জাহাজটি অন্তত পাঁচটি হেলিকপ্টার বহনে সক্ষম বলে দাবি করেছে ইরানের নৌবাহিনী। আইআরআইএনএস মাকরান নামের জাহাজটি ইরানি নৌবহরের সবচেয়ে বড় যুদ্ধজাহাজ।

iran large war shipবিশাল যুদ্ধজাহাজ প্রকাশ্যে আনলো ইরান

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, ওমান সাগরে বুধবার ইরানের দুই দিনব্যাপী নৌমহড়া শুরু হয়েছে। সেখানেই প্রথমবারের মতো বিশাল এই যুদ্ধজাহাজটি সামনে আনা হলো।

খবরে বলা হয়েছে, জাহাজটির দৈর্ঘ্য ২২৮ মিটার বা ৭৪৮ ফুট। যা আগে তেলের ট্যাংকার হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। পরে সেটিকে যুদ্ধজাহাজে রূপান্তর করে ইরানের নৌবাহিনী।

iran large war ship 1বিশাল যুদ্ধজাহাজ প্রকাশ্যে আনলো ইরান

ইরানের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সরবরাহ ও পরিবহনসেবা, মেডিকেল সহায়তা, নৌপথে অনুসন্ধান ও উদ্ধার তৎপরতা এবং বিশেষ বাহিনী মোতায়েনের পাশাপাশি দ্রুতগামী নৌযানগুলোর জন্য ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহৃত হবে আইআরআইএনএস মাকরান।

চলমান মহড়ার ব্যাপারে ইরানের অ্যাডমিরাল হামজেহ আলি কাভিয়ানি বলেছেন, সময়মতো শত্রুপক্ষের সম্ভাব্য হুমকির জবাব দিতে আমাদের দক্ষতার মূল্যায়ন করতে পারছি এ মহড়ার মাধ্যমে। সেইসঙ্গে নিজেদের দুর্বলতা মোকাবেলা এবং শক্তি বাড়িয়ে দক্ষতার উন্নতিও হচ্ছে।

iran large war ship 2বিশাল যুদ্ধজাহাজ প্রকাশ্যে আনলো ইরান

প্রসঙ্গত, প্রথমবারের মতো এর আগে চলতি বছরের শুরুতে ড্রোন মহড়া চালায় ইরান। ওই সময় নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি শত শত ড্রোন প্রদর্শন করে তেহরান। এ ছাড়া ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি) গত সপ্তাহে পারস্য উপসাগরের উপকূলে একটি ভূগর্ভস্থ ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটির কথা প্রকাশ করে। এ ধরনের আরো অনেকগুলো ঘাঁটি রয়েছে বলেও দাবি করে ইরানের এই এলিট ফোর্স।

sheikh mujib 2020