advertisement
আপনি দেখছেন

নির্বাচন কমিশনের নোটিসের কী জবাব দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী, তা নিয়ে তীব্র কৌতূহল ছিল বৃহস্পতিবার। এদিন তিনি কমিশনের দিকে পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিলেন, ‘মোদি তো রোজ হিন্দু-মুসলিম করে, তাকে কয়টা নোটিস দিয়েছেন?’

mamata westbengal closes institutionsপশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়, ফাইল ছবি

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় সম্প্রতি বিজেপির বিরুদ্ধে সব মুসলিমকে এক হওয়ার আহ্বান জানান। এ বক্তব্যের মাধ্যমে মমতা সংখ্যালঘুদের ভোটকে প্রভাবিত করেছেন মর্মে বিজেপির তরফে তার বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করা হয়। এর পর নির্বাচন কমিশন বুধবার মমতাকে একটি নোটিশ পাঠায়। তাতে বলা হয়, নোটিশ পাওয়ার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কমিশনের চিঠির জবাব দিতে হবে।

এএনআইয়ের খবরে বলা হয়, মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী কমিশনের নোটিসকে খাটো করে পাল্টা টেনে এনেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদিকে। কমিশনকে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও জবাব পাঠাননি তিনি। তবে বৃহস্পতিবার হাওড়ার ডোমজুড়ের জনসভায় তিনি কমিশনকে নিশানা করে অভিযোগ ও প্রশ্ন তুলেছেন, প্রধানমন্ত্রী যে হিন্দু-মুসলিম বিভাজন ঘটানোর চেষ্টা করেন, সে ব্যাপারে তার বিরুদ্ধে কয়টা অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

কমিশন কঠোর মনোভাব দেখালেও মুখ্যমন্ত্রীও চড়া সুরে কথা বলেন এদিন। তাদের কার্যত তোয়াক্কা না করার ভঙ্গিতে বলেন, আমার নামে ১০টা শোকজ নোটিস জারি হলেও কিছু আসে যায় না।

narandra modi indian pmভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, ফাইল ছবি

মমতা সম্প্রতি মুসলিমদের আর কাউকে না দিয়ে তৃণমূলকেই ভোট দিতে বলেন, সমালোচনা করেন সংযুক্ত মোর্চার নেতা আব্বাস সিদ্দিকিরও। আব্বাস মুসলিম ভোটে ভাঙন ধরিয়ে বিজেপির সুবিধা করে দিতে আসরে নেমেছেন বলেও আক্রমণ করেন তাকে। এ নিয়ে খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিই মুসলিম ভোট তার হাতছাড়া হয়ে গেছে বলে কটাক্ষ করেন মমতাকে।

মমতা বৃহস্পতিবার বলেন, আমি প্রত্যেককে বলছি একজোট হয়ে ভোট দিতে, যাতে কোনো বিভাজন না হয়। নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে কতগুলি অভিযোগ জমা পড়েছে? উনি তো প্রতিদিন হিন্দু-মুসলিম বিভাজন করেন। মোদির মতোই বিজেপির অন্য নেতারাও একই কৌশল নিয়েছেন বলে অভিযোগ তুলে কেন তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ দায়ের হয়নি, জানতে চান মমতা।

নিন্দুক-সমালোচকদের একহাত নিয়ে তিনি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সব সম্প্রদায়ের মানুষের পাশে আছেন বলে দাবি করেন। বলেন, যারা নন্দীগ্রামের মুসলিমদের পাকিস্তানি বলেছিল, তাদের বিরুদ্ধে কটা অভিযোগ দায়ের হয়েছে? ওদের লজ্জা হয় না! ওরা আমার কিছু করতে পারে না। আমি হিন্দু, মুসলিম, শিখ, খ্রিস্টান, আদিবাসী- সবার সঙ্গেই আছি।

পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকেও নিশানা করেন মমতা। বলেন, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে শ্রদ্ধা করি। কিন্তু যারা বিজেপির হাতের পুতুল, মা-বোনেদের বিজেপিকে ভোট দেওয়ার জন্য ভয় দেখাচ্ছে, তাদের প্রতি বিন্দুমাত্র শ্রদ্ধা নেই আমার।