advertisement
আপনি দেখছেন

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সজোরে থাপ্পড় খাওয়ার ঘটনা ভাইরাল হয়েছে ইন্টারনেট দুনিয়ায়। গত ৮ জুনের ওই ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই থাপ্পড় মারা যুবককে আটক করে নিরাপত্তা বাহিনী। যুবকের নাম ড্যামিয়েন টারেল। গতকাল বৃহস্পতিবার (১০ জুন) আদালত তাকে ৪ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করে।

damien terrellড্যামিয়েন টারেল

বিচারকের রায় ঘোষণার আগে আদালতে কথা বলার অনুমতি চান ড্যামিয়েন টারেল। সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি নিজেকে ‘দেশপ্রেমিক’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। অন্যদিকে ৪ মাসের কারাদণ্ড ঘোষণার পাশাপাশি আদালত জানিয়েছে, আগামী ৫ বছর কোনো অস্ত্রের মালিক হতে পারবেন না টারেল। এছাড়া জীবনে কোনোদিন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।

গত মঙ্গলবার শিক্ষার্থী ও রেস্টুরেন্ট মালিকদের সঙ্গে আলোচনা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে সেখানে উপস্থিত জনতার সঙ্গে কুশল বিনিময়ের সময় অকস্মাৎ ম্যাক্রোঁর গালে সজোরে থাপ্পড় বসিয়ে দেয় ড্যামিয়েন টারেল। করোনাভাইরাসের প্রকোপ কিছুটা কমে যাওয়ায় সবকিছু কীভাবে স্বাভাবিক করে আনা যায়- তা নিয়ে আলোচনা করতে ওই অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন ম্যাক্রোঁ।

এই ঘটনার পর ম্যাক্রোঁ বলেছেন, আমি বরাবরই মানুষের কাছাকাছি যাওয়াটা পছন্দ করি। তাদের সমস্যা শুনতে চাই, সমস্যা থাকলে সমাধান করতে চাই। এটাই গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় সৌন্দর্য। একজন শাসককে কাছে পেলে মানুষ তার ক্ষোভ-হতাশা প্রকাশ করবে, তা অস্বাভাবিক কিছু নয়। কিন্তু আমাদেরকে মনে রাখতে হবে, সেটা যেন সহিংসতায় রূপ না নেয়।