advertisement
আপনি দেখছেন

সম্প্রতি ৪২ হাজার হেক্টর জমির ওপর বিশাল এক প্রকল্প নেয়া হয়েছে স্বর্ণখনি খননের। গত জানুয়ারিতে এই কাজ দেয়া হয় একটি সংস্থাকে। প্রকল্পের কট্টর সমালোচক ছিলেন হেলমুড হনটং (৫৮), যার অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বিমানে। গত ৯ জুন এমন ঘটনা ঘটেছে ইন্দোনেশিয়ায়।

helmud huntong goldহেলমুড হনটং ও স্বর্ণের বার, ফাইল ছবি

দেশটির হনটংয়ের প্রত্যন্ত সাংগিহে দ্বীপপুঞ্জের রাজনীতিবিদ হনটং সুস্থভাবে হেঁটে বালি বিমানবন্দরের একটি উড়োজাহাজে উঠেছিলেন। এর মিনিট বিশেক পর হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং সুলতান হাসানউদ্দিন বিমানবন্দরে পৌঁছার আগেই মারা যান তিনি।

হৃৎস্পন্দন বন্ধ হয়ে মারা যাওয়ার কথা বলা হলেও স্থানীয়রা বলছেন, এই মৃত্যুর পেছনে গভীর ষড়যন্ত্রের আভাস রয়েছে। কেননা, গত ২৮ এপ্রিল পরিবেশগত উদ্বেগ প্রকাশ করে স্বর্ণখনি প্রকল্পটি বাতিলের দাবি জানিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে একটি চিঠি পাঠিয়েছিলেন হনটং। সেটিই তার জন্য কাল হলো, মনে করেন তারা।

gold mining project in sangihe indonesiaইন্দোনেশিয়ার সাংগিহেতে স্বর্ণখনি খনন প্রকল্প, ফাইল ছবি

বিবিসি জানায়, এই মৃত্যুর ঘটনা নিরপেক্ষভাবে তদন্তের দাবি জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্থাগুলো। এরপরই তদন্তের ঘোষণা দিয়েছে ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ। তবে এখন পর্যন্ত এই অস্বাভাবিক মৃত্যুর কারণ জানাতে পারেনি তারা।