advertisement
আপনি দেখছেন

করোনা মহামারিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাত লাখ মানুষের প্রাণ গেছে। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট যখন কমতে শুরু করেছে, তখনই দেশটি মহামারির এই হৃদয়বিদারক মাইলফলকে পৌঁছল। শুক্রবার (১ অক্টোবর) সর্বশেষ বুলেটিনে এ তথ্য জানা গেছে। মৃত্যুর সংখ্যা ৬ লাখ থেকে ৭ লাখে পৌঁছাতে মাত্র সাড়ে তিনমাস সময় লাগল। মৃত্যুর এই সংখ্যা বোস্টনের জনসংখ্যার চেয়ে বেশি। গ্লোবাল নিউজ।

corona usa fridayকরোনায় হৃদয়বিদারক মাইলফলকে যুক্তরাষ্ট্র

এই মাইলফলক জনস্বাস্থ্য নেতাদের এবং সামনের সারিতে কাজ করা চিকিৎসা পেশাজীবীদের জন্য হতাশাজনক। কারণ আর মাত্র ছয় মাসের মধ্যেই সব আমেরিকান নাগরিক ভ্যাকসিন পেয়ে যাবে। আনুমানিক ৭০ মিলিয়ন আমেরিকান এখনও টিকা পায়নি।

ইউএফ হেলথ জ্যাকসনভিলের নার্স ম্যানেজার দেবি ডেলাপাজ বলছেন, করোনাভাইরাসে আর কোনো রোগীর মৃত্যু হওয়া উচিত নয়। তিনি একটি ঘটনা স্মরণ করেন, যেদিন হাসপাতালের একটি পয়েন্ট থেকে একই দিন আট রোগীর মৃত্যু দেখেছিলেন। তেমনটি যাতে আর না হয় সেই কামনা করেন তিনি।

corona usaমৃত্যুর সংখ্যা ৬ থেকে ৭ লাখে পৌঁছাতে সময় লেগেছে মাত্র সাড়ে তিনমাস

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে ক্রমবর্ধমান মৃত্যু সত্ত্বেও স্বাস্থ্যখাতে উন্নতির লক্ষণ রয়েছে। দেশব্যাপী এখন হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা কমে এসেছে। এই সংখ্যা ৭৫ হাজারে নেমে এসেছে, যেখানে সেপ্টেম্বরের শুরুতে সংখ্যাটা ছিল ৯৩ হাজার।

সার্বিকভাবে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে দেশটিতে। এই উন্নতির মূল কারণ হিসেবে ধরা হচ্ছে মাস্ক পরার প্রবণতা বৃদ্ধি এবং টিকাগ্রহণ। আরেকটি অগ্রগতির কথা বলা হচ্ছে, সেটি হল করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য এটির পরীক্ষামূলক পিল সরবরাহ।

এই পিলে হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মৃত্যুর সংখ্যা অর্ধেক কমিয়েছে। যদি এটি নিয়ন্ত্রকদের কাছ থেকে অনুমোদন লাভ করে, তবে এটি হবে কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসার জন্য প্রথম কার্যকরী পিল যা মহামারীর বিরুদ্ধে অস্ত্রের মতো কাজ করবে। পিলটি সহজেই ব্যবহারযোগ্য।

সরকারের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউসি সতর্ক করেছেন, অনেকের মধ্যে টিকা ছাড়া থাকার প্রবণতা দেখা দিতে পারে। এটা ভালো খবর যে আমরা মহামারির জটিল পরিস্থিতি থেকে উত্তরণ পেতে শুরু করছি। তবে এটি টিকা না নেওয়ার জন্য কোনো উৎসাহজনক খবর নয়। যারা টিকা না নেওয়ার দৃঢ় সংকল্প করেছেন, তাদের মন পরিবর্তন হবে কিনা- সেটাই বিবেচ্য।

ইউনিভার্সিটি অফ মিনেসোটা সেন্টার ফর ইনফেকশাস ডিজিজ রিসার্চ অ্যান্ড পলিসির পরিচালক মাইক অস্টারহলম সতর্ক করেন, যদি আপনি টিকা না দিয়ে প্রাকৃতিক সংক্রমণ থেকে সুরক্ষা পাচ্ছেন বলে মনে করেন, তবে এই ভাইরাস আপনাকে ধরবেই।