advertisement
আপনি দেখছেন

অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মুখে পড়া আফগানিস্তানকে মানবিক সহায়তা দিতে সম্মত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। কাতারের দোহায় রোববার আলোচনা শেষে এক বিবৃতিতে তালেবান এই তথ্য জানিয়েছে। এর আগে শনিবার যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনা শুরু করে আফগানিস্তানের ক্ষমতাসীন দল তালেবান। তবে এ ব্যাপারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। টিআরটি ওয়ার্ল্ড।

taliban delegates meet with qatar delegates in doha qatarকাতারের দোহায় কাতারের প্রতিনিধিদের সঙ্গে তালেবান প্রতিনিধিদের সাক্ষাৎ

বিবৃতিতে তালেবান জানিয়েছে, কাতারের দোহায় অনুষ্ঠিত আলোচনা ‘ভালো হয়েছে’। ওয়াশিংটন আফগানিস্তানে মানবিক সহায়ত দেবে। তবে এর সাথে তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেওয়ার বিষয়টি যুক্ত নেই। খবরে বলা হচ্ছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এটা স্পষ্ট করে দিয়েছে যে, এই আলোচনা কোনোভাবেই তালেবানদের স্বীকৃতির প্রস্তাবনা নয়।

চলতি বছরের আগস্টে তালেবান আফগানিস্তান দখল ও সেপ্টেম্বরে সরকার গঠনের পর থেকেই তালেবান আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে। তবে তালেবান সরকারকে অনেক দেশ সহায়তা করলেও এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়নি কোনো দেশ।

afghan taliban dialogue 1তালেবান নেতারা

কাতারের দোহায় যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি দলের সঙ্গে তালেবানের দুদিনের বৈঠক শুরু হয় শনিবার (৯ অক্টোবর)। প্রথম দফা বৈঠকের পর তালেবান মুখপাত্র সুহাইল শাহীন জানান, তালেবান স্বাধীনভাবে দায়েশ মোকাবেলা করতে সক্ষম। এক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতা তাদের দরকার হবে না।

তিনি সংবাদ সংস্থা এপিকে বলেন, আফগান পররাষ্ট্রমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রকে আশ্বস্ত করেছেন, আফগানের মাটি কোনো সশস্ত্র গোষ্ঠী অন্য দেশের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে পারবে না।

খবরে বলা হচ্ছে, আফগানিস্তানে এখন তালেবানের প্রধান শত্রু আইএস। শুক্রবারের (৮ অক্টোবর) আত্মঘাতী বোমা হামলাহ সাম্প্রতিক কয়েকটি হামলার দায় স্বীকার করেছে তারা। ওয়াশিংটনও আইএসকে তালেবানের চেয়ে বড় হুমকি বলে মনে করে।