advertisement
আপনি পড়ছেন

আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মোল্লা মোহাম্মদ ইয়াকুব বলেছেন, তারা পুরোপুরি স্বাধীন ও স্বনির্ভর একটি বিমানবাহিনী গঠনে কাজ করছেন। কোনো দেশ বা গোষ্ঠীর সমর্থনের ওপর এটি নির্ভর করবে না। শুক্রবার কাবুল বিমানবন্দরের কর্মীদের সঙ্গে এক বৈঠকে এই মন্তব্য করেন তিনি।

mullah mohammad yaqoobমোল্লা মোহাম্মদ ইয়াকুব

মোল্লা মোহাম্মদ ইয়াকুব বলেন, নতুন এই বিমান বাহিনীর জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও আঞ্চলিক দেশগুলোর সমর্থনের প্রয়োজন হবে না। এমনকি ভারত, পাকিস্তান, উজবেকিস্তান ও তাজিকিস্তানের সহযোগিতারও প্রয়োজন হবে না।

এর আগে ইসলামিক আমিরাতের কর্মকর্তারা বলেছিলেন, তারা এক লাখ সদস্যের সমন্বয়ে একটি সেনাবাহিনী গঠন করবেন। গত মাসে পাকিস্তান সফরের সময় দেশটির ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি বলেছিলেন, তাদের ছোট কিন্তু প্রশিক্ষিত একটি সেনাবাহিনী দরকার।

afghan air forceআফগান বিমানবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার

এদিকে গত কয়েকদিনে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ফুটেজ ভাইরাল হয়েছে। তাতে আফগান সামরিক সরঞ্জাম পরিবহন করতে দেখা যাচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা দাবি করেছেন, এসব সামরিক সরঞ্জাম আফগানিস্তান থেকে পাকিস্তানে পাচার করা হচ্ছে।

তবে তালেবান সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় স্পষ্টভাষায় জানিয়ে দিয়েছে, তারা কোনো সামরিক সরঞ্জাম দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেয়নি। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের এই দাবিকে ভিত্তিহীন বলে প্রত্যাখ্যান করে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইদ খোস্তি বলেন, আমরা পাকিস্তানে সামরিক সরঞ্জাম পাচার সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করি। কাউকেই এটা করতে দেয়া হবে না।