advertisement
আপনি পড়ছেন

মধ্য এশিয়ার দেশগুলোকে হুমকি দিচ্ছে ইসলামিক স্টেট সশস্ত্র গোষ্ঠীর আফগান শাখা। তারাই আফগানিস্তানে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির অন্যতম প্রধান কারণ। জাতিসংঘে রাশিয়ার প্রথম উপ-স্থায়ী প্রতিনিধি দিমিত্রি পলিয়ানস্কি জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে এসব অভিযোগ তুলেছেন। রাশিয়ার সংবাদ সংস্থা তাস এ খবর দিয়েছে।

9 killed in afganistanআইএস-কের হামলার পর আফগান বাহিনীর কড়া পাহারা

আইএস এবং আল-কায়েদা সশস্ত্র গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ব্যবস্থা নেওয়ার ওপর জোর দেন দিমিত্রি। তার দাবি, বিষয়টি বাস্তবায়নে যেন বিশ্বনেতারা গুরুত্ব দেন। তিনি বলছেন, আফগানিস্তানে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির অন্যতম কারণ আইএস।

রাশিয়ার ডেপুটি দূত উল্লেখ করেন, আমরা প্রতিবেশী মধ্য এশিয়ার দেশগুলোর জন্য আফগানে আইএসের উপস্থিতিকে হুমকি হিসেবে দেখি। আত্মঘাতী বোমা হামলার সংখ্যা বাড়ছে। এতে বোঝা যায় গ্রুপটিতে প্রয়োজনীয় জনবলের অভাব নেই।

পলিয়ানস্কি কালো তালিকাভুক্ত আইএস গোষ্ঠীর অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড প্রতিরোধ কার্যক্রম জোরদারের বিষয়টি ফোকাস করার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন। তার আশঙ্কা, ব্যবস্থা না নিলে পরিস্থিতি আরও খারাপ করে তুলতে পারে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি।

আফগানিস্তানের আইএসের বর্তমান নাম আইএস-কে। সশস্ত্র গোষ্ঠীটি আফগানিস্তানের অভ্যন্তরে হামলা চালিয়ে তালেবান সরকারের ঘুম হারাম করে দিয়েছে। শিয়া মুসলমানদের টার্গেট করে ইতোমধ্যে তারা বড় বড় কয়েকটি আত্মঘাতী বোমা হামলা চালিয়েছে। এসব হামলায় দেড় শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে।