advertisement
আপনি পড়ছেন

ইসলামিক আমিরাত অব আফগানিস্তানের তালেবান সরকারকে এখন পর্যন্ত কোনো দেশই স্বীকৃতি দেয়নি। এছাড়া যেসব দেশ আফগানিস্তানের রিজার্ভসহ বিভিন্ন তহবিল আটকে রেখেছিল, তারাও তা ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে কোনো উদ্যোগ নেয়নি। কিন্তু জানা যাচ্ছে তারা আফগান জনগণের জন্য সাহায্য পাঠাতে প্রস্তুত।

deputy prime minister abdul salam hanafiআফগানিস্তানের দ্বিতীয় উপ-প্রধানমন্ত্রী আব্দুস সালাম হানাফি

বিভিন্ন সংস্থা ও দেশ এরই মধ্যে আফগানিস্তানে কোটি কোটি ডলারের সহায়তা পাঠানোর দাবি করেছে। এমতাবস্থায় ইসলামিক আমিরাত অব আফগানিস্তানের তালেবান সরকার জানিয়েছে, আফগানিস্তানের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষকে সাহায্য করতে হলে সরকারের সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমেই তা পরিচালনা করতে হবে।

আফগানিস্তানের দ্বিতীয় ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী আব্দুস সালাম হানাফি বলেছেন, সরকারের সাথে সমন্বয় করে আফগানিস্তানের মানুষের কাছে মানবিক সাহায্য বিতরণ করতে হবে। আর ইসলামি আমিরাতের কর্মচারীদেরও সারাদেশে অভাবী মানুষকে সহায়তা প্রদানে জড়িত হওয়া উচিত। তিনি ত্রাণ বিতরণে স্বচ্ছতারও আহ্বান জানান।

humanitarian aid in afghanistanআফগান জনগণের জন্য আরব আমিরাতের সহায়তা সামগ্রী

তিনি আরো বলেন, আন্তর্জাতিক সাহায্য দারিদ্র্য ও অনাহার মোকাবেলা এবং অর্থনৈতিক সংকটের স্থায়ী কোনো সমাধান নয়। আমরা বিশ্বাস করি, সরকার ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উচিত অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড জোরদার করা। গতকাল বুধবার এক সমাবেশে হানাফি এসব কথা বলেন।

এদিকে, জাতিসংঘ ও এর বিভিন্ন অঙ্গ প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি পাকিস্তান, সৌদি আরবসহ বেশ কিছু দেশ আফগানিস্তানে সহায়তা পাঠানোর দাবি করেছে। জাতিসংঘ মহাসচিবের ডেপুটি স্পেশাল রিপ্রেজেন্টেটিভ এবং আফগানিস্তানের বিষয়ে মানবিক সমন্বয়কারী রমিজ আলাকবারভ বলেছেন, সংস্থাটি ২০২১ সালে প্রায় ১৮ মিলিয়ন আফগানকে মানবিক সহায়তা প্রদান করেছে।

আফগানিস্তানের অর্থ মন্ত্রণালয় জানায়, দেশজুড়ে মানুষের কাছে সাহায্য বিতরণের জন্য তিনটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। উপমন্ত্রী লাল মোহাম্মদ ওয়ালিজাদা বলেন, আমরা এসব কমিটি গঠন করেছি যাতে দেশব্যাপী অসহায় মানুষের কাছে সাহায্যগুলো সঠিকভাবে হস্তান্তর করা যায়।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সম্পদ আটকে দেয়াসহ এবং আন্তর্জাতিক সাহায্য স্থগিত করার কারণে আফগানিস্তান একাধিক সংকটের সম্মুখীন হচ্ছে। বিশেষ করে আর্থিক সংকটের মুখে দেশটির অর্থনীতি ভেঙে পড়ার জোগাড় হয়েছে বলে জানিয়েছে তালেবান সরকার।