advertisement
আপনি পড়ছেন

জাতিসংঘের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা বলেছেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনের লাখ লাখ মানুষকে সাহায্য করতে এ বছর প্রায় ৩.৯ বিলিয়ন ডলার প্রয়োজন হবে। সংস্থাটির মানবিক বিষয়ক ভারপ্রাপ্ত সহকারী সেক্রেটারি-জেনারেল এবং ডেপুটি জরুরি ত্রাণ সমন্বয়কারী রমেশ রাজাসিংহাম বুধবার, ১২ জানুয়ারি, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে ওই চাহিদার কথা বলেছেন। আল জাজিরা।

un says 3 9bn dollar needed for help in yemen as conflict escalatesইয়েমেনে ৩.৯ বিলিয়ন ডলার সহায়তা প্রয়োজন

জাতিসংঘ কর্মকর্তা নিরাপত্তা পরিষদে তুলে ধরেন, ইয়েমেনের প্রায় ১৬ মিলিয়ন মানুষকে সাহায্য করার জন্য এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় প্রতিবন্ধকতা হল তহবিল। যেখানে গৃহযুদ্ধের চেয়েও বেশি সময় ধরে দুর্ভিক্ষ চলছে। দাতাদেরকে এই বছর তাদের সমর্থন বাড়ানোর জন্য আহ্বান জানান তিনি।

রাজাসিংহাম বলছেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দাতা তহবিল হ্রাস পাচ্ছে। গত বছরের পরিকল্পনার মাত্র ৫৮ শতাংশে অর্থায়ন করা হয়েছে এবং ডিসেম্বরে জাতিসংঘ বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি ৮ মিলিয়ন মানুষের জন্য তার সহায়তা বাজেটে কাটছাঁট ঘোষণা করেছে।

logo united nationsজাতিসংঘের লোগো

তিনি বলেন, পানি, সুরক্ষা এবং প্রজনন স্বাস্থ্য পরিষেবাসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ প্রোগ্রামগুলো তহবিলের অভাবে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে পিছিয়ে গেছে বা বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। তহবিল ছাড়াও মানবিক সহায়তার জন্য প্রবেশাধিকার ও এবং নিরাপত্তা সহায়তা প্রধান প্রতিবন্ধকতা হিসেবে রয়ে গেছে।

বুধবার জাতিসংঘ জানিয়েছে, ইয়েমেন ক্রমবর্ধমান যুদ্ধের শঙ্কা প্রকাশ করেছে। যুদ্ধরত পক্ষগুলো যুদ্ধক্ষেত্রে বিজয় দাবি করার প্রচেষ্টাকে ত্বরান্বিত করছে। এ কারণে সংঘাত আরও স্থায়ী রূপ নিতে যাচ্ছে। ইয়েমেনে জাতিসংঘের মহাসচিবের দূত হ্যান্স গ্রুন্ডবার্গ নিরাপত্তা পরিষদকে বলেছেন, সংঘাতের পক্ষগুলো তাদের সামরিক শক্তি দ্বিগুণ করছে।

তিনি বলেন, ইয়েমেনে যুদ্ধ চলছে সাত বছর। পক্ষ-বিপক্ষের প্রচলিত বিশ্বাস, তারা একে অপরের পক্ষে বিরুদ্ধে চরম প্রতিশোধ পরায়ণ হয়ে উঠছে ও শত্রুপক্ষকে বশ্যতা স্বীকার করতে বাধ্য করার মনোভাব নিয়ে যুদ্ধ করছে।

তিনি মনে করেন, যুদ্ধ থামাতে টেকসই ও দীর্ঘমেয়াদি সমাধান খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। অস্ত্র নামাতে তারা প্রস্তুত নয়। একমাত্র সমাধান সব পক্ষকে আলোচনার টেবিলে বসানো।