advertisement
আপনি পড়ছেন

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, যে নিয়ম ও শর্তাবলি আফগানদের জীবন বাঁচাতে তহবিল ব্যবহার করা থেকে বাধা দেয় তা অবশ্যই স্থগিত করা উচিত। হিমায়িত তাপমাত্রা ও হিমায়িত সম্পদের সংমিশ্রণ আফগান জনগণের জন্য মারাত্মক সংকট হয়ে দেখা দিচ্ছে। গত বৃহস্পতিবার তালেবান সরকারের পক্ষ থেকে বাজেট ঘোষণার পর দেশটিতে অর্থনৈতিক ও সামাজিক পতন এড়াতে যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বব্যাংকের প্রতি এই আহ্বান জানান জাতিসংঘ মহাসচিব।

un chiefআন্তোনিও গুতেরেস

সংবাদ সম্মেলনে কথা বলার সময় গুতেরেস সতর্ক করে দিয়ে বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আরো বেশি সমন্বিত প্রচেষ্টা না থাকলে আফগানদের তীব্র দারিদ্র্যের মুখোমুখি হতে হবে। আফগানিস্তানের জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি বর্তমানে জীবন রক্ষাকারী সহায়তার ওপর নির্ভরশীল।

তালেবানের ক্ষমতা দখলের পর পশ্চিমা দেশগুলো আফগানিস্তানে কোটি কোটি ডলারের সহায়তা বন্ধ করে দেয়। বিষয়টিকে আফগানিস্তানের জন্য একটি অভূতপূর্ব আর্থিক ধাক্কা হিসেবে বর্ণনা করেছে জাতিসংঘ। সংস্থাটির মহাসচিব বলেছেন, লাখ লাখ আফগান এখন ‘মৃত্যুর দ্বারপ্রান্তে’।

afghan familyঅসহায় আফগান পরিবার

এ অবস্থা থেকে তাদেরকে রক্ষা করতে আপাতত আফগানিস্তানকে ৫০০ কোটি ডলার তহবিল সহায়তার আহ্বান জানান। জীবন রক্ষাকারী খাদ্য ও কৃষি সহায়তা, স্বাস্থ্যসেবা, অপুষ্টির চিকিৎসা, জরুরি আশ্রয়, পানি ও স্যানিটেশন, সুরক্ষা ও জরুরি শিক্ষার জন্য চলতি বছর জাতিসংঘের এই অর্থ প্রয়োজন হবে। এ সময় তিনি দেশটির অর্থনৈতিক ও সামজিক পতন ঠেকাতে আফগানিস্তানের জব্দ করা সম্পদ অবমুক্ত করে এর ব্যাংকিং ব্যবস্থা শুরু করার কথা বলেছেন।

আফগানিস্তানের বেসামরিক কর্মচারীদের অতিরিক্ত বেতনের দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেছেন, সরকারি খাতের কর্মীদের বেতন প্রদানের জন্য আন্তর্জাতিক অর্থায়নের অনুমতি দেওয়া উচিত এবং আফগান প্রতিষ্ঠানগুলিকে স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পরিষেবা সরবরাহ করতে সহায়তা করা উচিত।

জাতিসংঘ মহাসচিব এ সময় মৌলিক মানবাধিকার, বিশেষ করে নারী ও মেয়েদের অধিকারকে স্বীকৃতি ও সুরক্ষা দেওয়ার জন্য ইসলামী আমিরাত নেতৃত্বের প্রতি আহ্বান জানান। আফগানিস্তানের নারী ও মেয়েদের অবশ্যই শিক্ষা এবং কর্মসংস্থানের সুযোগ, স্বাস্থ্যসেবা এবং অন্য প্রয়োজনীয় পরিষেবাগুলোতে অ্যাক্সেস থাকতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কোনো দেশই তার অর্ধেক জনসংখ্যার অধিকারকে অস্বীকার করে উন্নতি করতে পারে না।