advertisement
আপনি পড়ছেন

অবৈধভাবে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টার অভিযোগে তালেবান কর্তৃপক্ষ নারীসহ ৪০ জনকে আটক করেছে। তালেবানের এক কর্মকর্তা অবশ্য জানিয়েছেন, আটককৃতদের অধিকাংশকেই ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

afghan airportআফগানিস্তানের একটি বিমানবন্দর 

তালেবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার প্রাক্কালে বহু নাগরিক দেশটি ছেড়ে ভিন দেশে চলে যাওয়ার আগ্রহ দেখায়। কিন্তু সবার পক্ষে দেশত্যাগ করা সম্ভব হয়নি। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির যোগাযোগ ব্যবস্থা কিছুদিন বন্ধ থাকায় অন্য দেশে চলে যাওয়া সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ হয়ে যায়। সম্প্রতি বিমান যোগাযোগ চালু হলে ওই প্রবণতা আবারও ফিরে আসে।

এর মধ্যেই গত সোমবার অবৈধভাবে আকাশপথে আফগানিস্তান ত্যাগের প্রাক্কালে বেশ কয়েকজনকে আটক করে তালেবান কর্তৃপক্ষ। যথাযথ কাগজপত্র না থাকায় তাদের আটক করা হয়েছিল। তালেবান মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ সোমবার গভীর রাতে এক টুইটে জানান, একটি দল উত্তরের শহর মাজার-ই-শরিফ থেকে দেশত্যাগের চেষ্টা চালিয়েছিল। তাদের মধ্যে ৪০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

zabiulla mujahidজবিউল্লাহ মুজাহিদ

তিনি বলেন, আটককৃতদের বেশিরভাগকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে, কিন্তু কিছু নারীকে আটকে রাখা হয়েছে। পুরুষ আত্মীয়রা এলেই তাদেরকে মুক্তি দেয়া হবে।

জানা গেছে, হাজার হাজার আফগান এখনো দেশত্যাগ করতে মরিয়া। ইসলামিক আমিরাত কর্তৃপক্ষ দেশের জন্য দক্ষ জনবলের প্রয়োজনে তাদেরকে দেশত্যাগ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছে। একই সাথে ইতোমধ্যে বিদেশে চলে যাওয়া দক্ষ জনশক্তিকে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়েছে। তারপরও বিদেশে গমনেচ্ছুদের কাগজপত্র ঠিক থাকলে কোনো বাধা দিচ্ছে না বলেই জানিয়েছে দেশটির প্রশাসন।